×
ভাইরাল

অবিকল মানুষের ভাষায় গান গেয়ে সকলকে তাক লাগলো খুদে শালিক, তুমুল ভাইরাল ভিডিও

বিজ্ঞাপন

আদি লগ্ন থেকেই প্রাণীরা পোষ মানে মানুষের কাছে। মানুষ ছলে বলে বিভিন্ন কৌশলে পোষ মানাতে পারে বন্যপ্রাণীদেরও। আর কুকুর পোষাতো বহু যুগ আগে থেকেই শুরু করেছিল মানুষ। কিন্তু, যুগ যত পরিবর্তিত হতে শুরু করেছে এখন অন্যান্য প্রাণীদের পোষা শুরু করেছেন তারা। তবে, শুধু পশু নয় মানুষের বশ্যতার স্বীকার করে পক্ষীরাও। টিয়া থেকে শুরু করে শালিক এই পাখির মধ্যে বাদ যায় না কেউই। সম্প্রতি, সামাজিক মাধ্যমে ব্যাপক ভাইরাল হয়েছে এক শালিক পাখির ভিডিও, যা একেবারে চমকে দেওয়ার মতো!

বিজ্ঞাপন

সাধারণত টিয়া, তোতা পাখি এরাই মানুষের কথা নকল করে। আবার কিছু সময় তাদের গান-ও করতে দেখা যায়। কিন্তু ভাইরাল সেই ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে কথা বলা কি; এতো একেবারে গান করছে এক শালিক পাখি। শালিক পাখিও যে গান করতে পারে তা সত্যি চমকে দেওয়ার মতো। আসলে এই সমস্ত প্রাণীরা বাড়িতে থাকতে থাকতে মানুষের বহু অঙ্গিভঙ্গি ও কথা বলার ক্ষমতা রপ্ত করার চেষ্টা করে। এছাড়া তাদের অনেক সময় সুন্দরভাবে ট্রেনিং দেওয়া হয়, যার ফলে আপনি যখন যেটা শেখাবেন তারা সেটাই শিখবে।

আর অন্যান্য পাখির চেয়ে শালিক পাখি পোষা অত্যন্ত সহজ। এই পাখিকে কিছুদিন খাঁচায় রেখে তারপর নিশ্চিন্তে বাড়ির মধ্যে খোলা অবস্থায় রেখে দিতে পারেন। কেননা শালিক পাখি একবার পোষ মেনে গেলে সেই বাড়ি থেকে অন্য কোথাও যাবেনা। এমনকি এই পাখি পুষতে বেশি খরচ হয় না। একটু ছাতু ও মুড়ি খেতে দিলেই পেট ভরে যায় তাদের। আসলে গ্রামবাংলায় প্রায়ই শালিক পাখি দেখা যায় কিন্তু শহরে এই পাখি তেমন দেখা যায় না। তাই শহরের বহু মানুষ শালিক পাখি কিনে পোষ মানেন। বিশেষকরে ভারতের বাইরে এর চাহিদা প্রচুর।

তবে মানুষ ও পোষ্যের বন্ধন যুগ-যুগান্তর থেকে। মানুষ যেমন তাদের জন্য সব করতে পারেন তেমনি অন্যদিকে তার মালিকের জন্য-ও পশু-পাখিরা সবকিছু করতে পারে। এছাড়া আমাদের তো একাকিত্বের সঙ্গী হয়ে ওঠে তারা। তাই অবশেষে সকলের কাছে একটাই অনুরোধ এই নৃশংস দুনিয়ায় পৃথিবীর শেষ দিন পর্যন্ত যেন এই বন্ধন অটুট থাকে।

Related Articles