×
ভাইরাল

ভুলভাল লিরিক্স বলে শ্রেয়া ঘোষালের জনপ্রিয় গান গেয়ে ফের লাইমলাইটে রানাঘাটের রানু মন্ডল, রইল ভিডিও

বিজ্ঞাপন

বর্তমান সময় নিজের একদম খেয়াল রাখেন না রানু মন্ডল(Ranu Mondal)। তবে তার কন্ঠ তো ঈশ্বরের দান, লতা কণ্ঠি তিনি। শরীরের অবনতি যতই হোক সুরের সতেজতা একই রয়েছে। তাই তো নিজের সুরেলা কণ্ঠে শ্রেয়া ঘোষালের বিখ্যাত পুজোর গান গেয়ে তাক লাগিয়ে দিলেন নেটিজেনের। লিরিক্স ভুল হলেও সুরের কোন ত্রুটি নেই। বহু মানুষ তার ভুল লিরিক্স নিয়ে শত কটুক্তি করলেও রানুর জীবনে কিছুই যায় আসে না।

বিজ্ঞাপন

গাছের তোলা হোক কিংবা অট্টালিকা। প্রতিভা যেখানেই থাকুক না কেনো তাকে আটকে রাখার ক্ষমতা নেই, তার প্রকাশ হবেই। ঠিক তেমনি হয়েছিলো রানাঘাটের ৬ নং প্ল্যাটফর্মের ভিকারিনি রানু মন্ডলের সাথে। গান গেয়ে ভিক্ষা করে নিজের জীবন যাপন করতেন তিনি, সমাজের বিশিষ্ট সমাজ সেবক অতীন্দ্র রায়(Atindro Ray) এর নজরে আসেন রানু। লতাজির বিখ্যাত গান ‘এক পেয়ার কা নাগমা হে’ গেয়ে রাতারাতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যান রানু মন্ডল। তারপরে আর ফিরে তাকাতে হয়নি। তিনি পাড়ি দেন মুম্বাইতে, সেখানে হিমেশ রেশমিয়া(Himesh reshammiya)র অ্যালবামে গান গেয়ে ৭ লক্ষ্য টাকা পান। ২০১৯ এর দুর্গা পুজোর সব প্যান্ডেলে রানু দির ‘তেরি মেরি কাহানি’ (Teri Meri Kahani) গানটি বেজেছে।

রাতরাতি এতটা প্রভাব প্রতিপত্তি বিস্তৃত হওয়ায় অহংকার জন্মায় রানু মন্ডলের মনে। একদিন এক ভক্ত সেলফি নিতে এলে তার সাথে দুর্ব্যবহার করেন তিনি। তারপর স্টেজ শো পরিচালকদের একের পর এক অভিযোগের কারণে রাতারাতি তার সমস্ত প্রতিপত্তির নিষ্পত্তি হয়ে ফিরে আসেন রানাঘাটের সেই ভাঙ্গা বাড়িতে।

বর্তমানে স্টারডাম তেমন না থাকলেও ইউটিউবারদের মধ্যে সমান পপুলার রানু মন্ডল। ইউটিউব গুলিতে রানু দির ইন্টারভিউ নেওয়া হয় থাকে। ইন্টারভিউতে রানু দির কেমন কাটছে দিন জানার সাথে দু চার কলি গানও থাকে। তেমনি একটি ইন্টারভিউতে দেখা গেলো রানু দিকে শ্রেয়া ঘোষালের ‘ঢাক বাজা কাসর বাজা’ গানটি গাইতে। লাল টিশার্ট কাধে গামছা তার শরীরের অবস্থা খারাপ মুখে কোচকানো চামড়া উস্কোখুস্কো চুল হলেও সুরে গাইলেন গান। গানের লিরিক্স ভুল হলেও খামতি ছিলো না সুরে।

Related Articles