×
ভাইরাল

সেজে গুজে হাঁটুর বয়সী যুবকের বাইকের পিছনে বসে রোমান্স রানু মণ্ডলের, ভাইরাল ভিডিও

বিজ্ঞাপন

এবার একজন হাঁটুর বয়সী ছেলের সঙ্গে বাইকে বসে, একেবারে যুবতী মেয়েদের মতো বেড়াতে চলে গেলেন রানুদি। আবার কি, ছেলেটি একেবারে রানুদিকে তাঁর বাইকে বসিয়ে বলিউডের জনপ্রিয় চলচ্চিত্র ‘কৃষ 2’ এর একটি অসাধারণ গানের সঙ্গে তাল দিলেন। একেবারে ছবির হিরো-হিরোইনের মতো। রানাঘাট স্টেশনের ভিক্ষুক লতাকন্ঠী রানু মন্ডল (Ranu Mondal)। যিনি এককালে ইন্টারনেটের মাধ্যমেই ভাইরাল হলেও এখন নেই কোনও তাঁর হাঁকডাক। নেই তাঁকে ঘিরে কোনো উত্তেজনা! আসলে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে একজন মানুষকে যেমন খুব তাড়াতাড়ি ভাইরাল করে দিতেও সময় লাগে না, তেমনি সেই মানুষটিকে টেনে মাটিতে নামিয়ে দিতেও দেরি লাগেনা! হ্যাঁ, এখন সেই অবস্থাই হয়েছে রানুদির।

বিজ্ঞাপন

সবটাই মানুষের সৃষ্টি! ২০১৯ সালে লেজেন্ড্রারি গায়িকা লতা মঙ্গেশকরের (Lata Mangeshkar) ‘এক প্যায়ার কা নাগমা’ (Ek Pyar Ka Nagma Hain) গানটির গেয়ে রাতারাতি ভাইরাল হয়ে গিয়েছিলেন রানু মন্ডল। এমনকি মুম্বই পর্যন্তও পৌঁছে গিয়েছিলেন তিনি। সেখানে গিয়ে একাধিক মিউজিক এলবাম করে আরো খ্যাতির সঞ্চার হয় তাঁর। কিন্তু এই খাতি তাঁকে অহংকারী করে তোলে, যার কারনে সমাজের চোখে দুর্বিসহ হয়ে ফের আগের ভিক্ষুকের জীবনেই ফিরে যান তিনি।

এখন ভিখারীর মতনই জীবন কাটাচ্ছেন তিনি! তাই মাঝে মাঝে কিছু ইউটিউবাররা রানুদির ইন্টারভিউ নিতে আসেন, রানুদির সঙ্গে নানা রকমের ভিডিও বানিয়ে তাঁকে খুশি করে দিয়ে যান! আর তাতেই মানুষের কাছাকাছি পৌঁছতে পারেন রানু। ইউটিউবাররা তাঁকে নিয়ে নানারকম কীর্তিকলাপ করেন। তাঁর ইন্টারভিউ নেওয়ার পাশাপাশি রানুদিকে নিয়ে রোমান্টিক গান করেন, নাচ করেন। কেউ আবার তাঁকে নিয়ে নানা রসিকতাও করে। আর সবটাই রানুদির কাঁধে ভর দিয়ে সোশ্যাল ইউজাররা নিজেরা নাম কেনে।

হুম, মাঝে মধ্যেই তাঁকে নানা রকম অবতার সাজিয়ে তাঁর সঙ্গে বিভিন্ন পারফরম্যান্সও করেন ইউটিউবাররা। সম্প্রতি একজন ইউটিউবার রানুদির বাড়িতে উপস্থিত হয়েছিলেন সেখানেই তিনি রানু দিকে নিয়ে আবার একটি মজার ভিডিও বানালেন। যেখানে দেখা যাচ্ছে, রানুদির বাড়িতেই তাঁকে নিয়ে একেবারে বাইকে চাপিয়ে দারুণ একটি হিন্দি গানের সঙ্গে তাল মেলালেন। যেন পুরো একটি হিন্দি সিনেমার মতো, নায়ক-নায়িকাকে গাড়িতে বসিয়ে তাঁর সঙ্গে রোমান্টিক মুহূর্তের সৃষ্টি করছেন। আর রানুদিও ছেলেটির সঙ্গে তাল মেলালেন। এক্কেবারে হিরো-হিরোইনদের মতন করে। Subhajit Poddar নামক একটি ফেসবুক চ্যানেল থেকে পোস্ট করা হয়েছে সম্প্রতি এই ভিডিওটি। যাতে এখনো পর্যন্ত কয়েক হাজার পছন্দের সংখ্যা পৌঁছেছে। আর রানুদিও তাঁর সঙ্গে নাচ করে দারুণ আনন্দ পেয়েছেন, আসলে একটাই জীবন, তাই হাসি খুশি মজা আড্ডা সব একজীবনেই করে যাও!

Related Articles