×
ভাইরাল

সবুজ প্রকৃতির মাঝে অরিজিতের জনপ্রিয় বাংলা গানে অসাধারন নাচ খুদে কন্যার, তুমুল ভাইরাল ভিডিও

বিজ্ঞাপন

আজকাল সোশ্যাল মিডিয়া হয়ে উঠেছে এমন একটি মাধ্যম যার সাহায্যে আট থেকে আশি সকলেই নিজের সুপ্ত প্রতিভা অতি সহজে তুলে ধরতে পারছে লক্ষাধিক মানুষের সামনে। সেক্ষেত্রে এখন শুধু প্রয়োজন মুঠোফোন। যেখানে আপনার মধ্যে যদি প্রতিভা থাকে তাহলে এক ক্লিকের মাধ্যমে নিজের পরিচিতি অতি সহজেই গড়ে তুলতে পারবেন। আর দেবস্মিতা হল তেমনই এক ক্ষুদে শিল্পী। যে নিজের প্রতিভাকে প্রস্ফুটিত করে তুলে নতুন পরিচয় গড়ে তুলেছে। সম্প্রতি, নেটদুনিয়ায় দেখা মিলল অরিজিৎ সিং (Arijit Singh) -এর গাওয়া এক গানে এই খুদে শিল্পীর দুর্দান্ত নাচের ভিডিও।

বিজ্ঞাপন

বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়া খুললেই চারিদিকে যে গানটি বিরাজ করছে সেটি হল বিখ্যাত সংগীত শিল্পী আরিজিৎ সিং এর গাওয়া ‘কেনো পিছু ডাকো’ (Keno Pichu Dako) গানটি। প্রসঙ্গত, চলতি বছরে ফেব্রুয়ারি মাসে পরলোকে গমন করেছেন সুরসম্রাঙ্গী লতা মঙ্গেসকার (Lata Mangeshkar)। বেশ কিছুদিন যাবৎ করোনায় আক্রান্ত হয়ে মুম্বাইয়ে ব্রিচক্যান্ডি হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন তিনি। তারপরেই সরস্বতী পূজার দিন বিদায় নেয় জীবন্ত সরস্বতী। এবারে, লতা মঙ্গেসকারকে শ্রদ্ধা জানিয়ে এক অনুষ্ঠানে এই গানটি গেয়ে মানুষের মনে এক আলাদায় স্থান করে নিলেন অরিজিৎ সিং।

উল্লেখ্য, অরিজিৎ সিং-এর গাওয়া এই গানটিতে অসাধারণ নৃত্য পরিবেশন করে তাক লাগিয়ে দিলেন ত্রিপুরার উদয়পুরের ছোট্ট খুদে দেবস্মিতা ভৌমিক। আর নেটদুনিয়ায় এখন ব্যাপক ভাইরাল হয়েছে সেই ভিডিও। যেখানে দেখা যাচ্ছে, সবুজ প্রকৃতির কোলে চারদিকে গাছ ও একদিকে রয়েছে জল ভর্তি পুকুর। এই অপরূপ প্রাকৃতিক দৃশ্যের মাঝে সাদা রঙের ধুতি ও রঙিন শর্ট কুর্তি পরে গানে তালে দুর্দান্ত নাচ করছে দেবস্মিতা। বলাই বাহুল্য একদিকে স্বল্পস্নিগ্ধ সাজে যেমন দেখতে অসাধারণ লাগছিল এই বাচ্চাটিকে তেমনি অন্যদিকে গানের তালে তার নাচের প্রতিটি স্টেপ ছিল নজরকাড়া।

ভিডিওটি ‘চিত্রায়ন’ নামক ফেসবুক পেজে পোস্ট হতেই ভাইরাল হয়েছে ঝড়ের গতিতে। ইতিমধ্যে এই ভিডিওটি পৌঁছে গিয়েছে প্রায় ২.৪ মিলিয়ন মানুষের কাছে। সেইসঙ্গে তার নাচ পছন্দ করেছেন শত শত মানুষ এবং কমেন্ট বক্সে লক্ষ্য করা গিয়েছে অজস্র নেটিজেনদের প্রশংসামূলক মন্তব্য। সেখানে কেউ বলেছেন-‘ সত্যি অসাধারণ নাচ।’ তো কেউ বলেছেন-‘ তোমার এই উজ্জ্বল ভবিষ্যতের জন্য আগে থেকেই অনেক শুভেচ্ছা জানিয়ে রাখি।’

Related Articles