×
ভাইরাল

ভুবন বাদ্যকর এখন অতীত! অসাধারন গান গেয়ে মাছ বিক্রি করছেন কুশল বাদ্যকর, রইল ভিডিও

বিজ্ঞাপন

‘বাদাম কাকু’র পথ এখন অবলম্বন করলেন একজন মাছ বিক্রেতা। পারবেন কি তিনি ভুবন বাদ্যকরের মতো ভাইরাল হতে? আজকাল যেকোনো মুহূর্তে যে কারুর কপাল খুলে যেতে পারে। তবে যদি সহায় থাকে সোশ্যাল মিডিয়া। কারণ এখন নিজের প্রতিভাকে জাহির করে যে কেউ নিজেকে ভাইরাল স্টার বানিয়ে নিচ্ছেন। এরকম একাধিক উদাহরণ এর আগে আমরা বহুবার পেয়েছি।

বিজ্ঞাপন

যেমন রানু মন্ডল (Ranu Modal), ভুবন বাদ্যকর (Bhuban Badyakar) প্রমুখ সোশ্যাল গায়করা। এখন সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে শুধুই একটাই গান ‘বাদাম কাকু’র ‘কাঁচা বাদাম’ (Kancha Badam) গানটি। হ্যাঁ, মাস কয়েক ধরেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ধামাকা সৃষ্টি করছে ভুবন বাদ্যকরের ‘কাঁচাবাদাম’ গানটি। তবে এই গানের জন্যই এই বাদাম বিক্রেতা এখন রীতিমতন সেলিব্রিটিতে পরিণত হয়েছে। তবে এবার বাদাম গানটি অতীত, খোঁজ মিলল এক মাছ বিক্রেতা কাকুর। তাঁর নাম কুশল বাদ্যকর (Kushal Badyakar)।

এবার তিনি ভুবনবাবুর অনুপ্রেরণা পেয়ে গান ধরেছেন তাঁর মাছের ব্যবসা নিয়ে। ভুবনবাবুর মতনই তিনি ছড়া কেটে মাছ নিয়ে গান ধরেছেন, ‘মাছ নেবেন দাদা মাছ নেবেন’ (Mach Neben Dada)। তবে কুশলবাবু দুর্গাপুরের শোভাপুরের বাসিন্দা। পেশায় একজন মাছ বিক্রেতা তিনি, মাছ বেঁচেই সংসার চলে তাঁর। সাইকেলের পিছনে মাছের ঝুড়ি নিয়ে ঘুরে ঘুরেই মাছ বেচেন তিনি। যদিও তিনি গানের পরিবারেরই মানুষ, তাঁর দাদু একজন খোল বাদক এবং বাবা বেহালা বাদক ছিলেন।

তাই বলাই বাহুল্য, জিনগত প্রতিভা রয়েছে তাঁর মধ্যে। গানকে পেশা করতে না পারলেও, এবার পেশার সঙ্গে গানকে যুক্ত করলেন তিনি। এমনকি শুধু বিক্রি নয়, মাছ রান্নার গোটা রেসিপিটিও বাতলে দেন তিনি, তাঁর গ্রাহকদের। এবার তাঁর প্রতিভার সঙ্গে আলাপ হল সোশ্যাল মিডিয়াবাসীদেরও। আশা করা হচ্ছে তিনিও বাদামকাকুর মতই ভাইরাল হবেন।

Related Articles