×
অফবিট

একসময় কাজ করতেন STD বুথে, নিজের আইডিয়াকে কাজে লাগিয়ে আজ ২০০ কোটির কোম্পানির মালিক ব্যাক্তি

বিজ্ঞাপন

আজ আমরা আমাদের প্রতিবেদনে এমন এক ব্যক্তির কথা আপনাদের সকলের সমানে তুলে ধরবো, যার জীবনের গল্পঃ আপনাদের সবাইকে অনুপ্রেরিত করবে। ওই ব্যক্তির ব্যাপারে যতই বলা হয় ততই কম। ব্যক্তিটি যে অঞ্চলের 2BHK ফ্ল্যাটে থাকতেন সেই স্থানটি বর্তমানে একটি প্রতিষ্ঠিত স্থান হিসেবে পরিচিত। একসময় STD বুথে কাজ করতেন যে মানুষ তার বর্তমানে ১৪০ কোটি টাকার মালিক হওয়ার সত্যি কাহিনী সকলের সামনে তুলে ধরবো।

বিজ্ঞাপন

আমরা বলছি বিশিষ্ঠ ব্যক্তি অরুন খারাত (Arun kharat) কথা। ১৫০ বর্গফুটের একটি ছোট অফিসে STD বুথ চালাতেন অরুণ। তার দিনরাত পরিশ্রম এবং ধামাকাদার আইডিয়ার জন্যে বর্তমানে ৬০০ স্টাফ নিজের অফিসে কাজ করছেন। ছোট ব্যবসা শুরু করে আজ সুপরিচিত শিল্পপতিদের মধ্যে নিজের নাম দাখিল করার যাত্রা সবার জন্য খুবই অনুপ্রেরণাদায়ক।

অরুন খারাত পুনের খাড়কিতে একটি ছোট ও মধ্যবিত্ত পরিবারে জন্ম গ্রহণ করে ছিলেন। বাবা ছিলেন ক্যান্টনমেন্ট বোর্ডের সিভিল হেলথ সুপারিনটেনডেন্ট। অরুণের দশম শ্রেণি পর্যন্ত পড়ালেখার পর নিজের কাকার ছেলের একটি ছোট জুতোর দোকানে কাজ করতে শুরু করেছিলেন। এমন কী তিনি কিছু দিন নিজের মামার দোকানেও কাজ করেছেন। তারপরে পলিটেকনিক কলেজ থেকে মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে ডিপ্লোমা সম্পন্ন করেন। তবে তিনি চাকরি করবেন বলে ঠিক করে নিয়েছিলেন। নিজের বাবার স্বপ্ন পূরণ করতে একটি এসটিডি বুথ খুলেছিলেন। সেই সঙ্গে অরুণ টিকিট বুকিংয়ের কাজও শুরু করেছিলেন। তারপরে কিছু টাকা জমিয়ে একটা গাড়ি কেনেন। সেখান থেকেই উইংস (Wings Travel) কোম্পানির যাত্রা শুরু।

গাড়ি ভাড়ার ব্যবসা শুরু করার পর অরুণ স্টাফ ট্রান্সপোর্ট সার্ভিস থেকে একটি প্রস্তাব গ্রহণ করেন। যা তার জীবন পুরোপুরি বদলে। আসতে আসতে তার উইংস কোম্পানি মুম্বাই পুনে, গুরগাঁও, চেন্নাই, হায়দ্রাবাদ, ব্যাঙ্গালোর, চণ্ডীগড়, আহমেদাবাদ, বরোদা ও থাইল্যান্ডে নিজের ব্যবসা সম্প্রসারিত করেন। কেবল পুরুষ ড্রাইভারদের জন্যে নয় উইংস সখী যোজনার মাধ্যমে অনেক মহিলা চালককে কাজের সুযোগ করে দেন অরুন খারাত। ২০০৮ সালে তার কোম্পানির টার্নওভার পৌঁছায় ৮০ কোটি টাকা। ধীরে ধীরে ব্যবসা বাড়তে বাড়তে কোম্পানির টার্নওভার ২০০ কোটি টাকার বেশি। আর উইংস ট্রাভেলস কোম্পানি আজ নিজের নাম সর্বত্র ছড়িয়ে দিয়েছে।

Related Articles