×
নিউজ

সমুদ্রের উপর বিশালাকার ৬টি পিলারের সেতু দাঁড় করিয়ে গোটা বিশ্বকে তাক লাগলো চীন, রইল বিস্তারিত

বিজ্ঞাপন

বহু বছর পর খুলে দেওয়া হল ক্রোয়েশিয়ায় (Croatia) পেলজেসাক (Peljesac) সেতু। জানা গিয়েছে, এই সেতু তৈরি না হওয়া পর্যন্ত এখানকার মানুষদের যাতায়াত মাধ্যম ছিল দুব্রোভনিক, যেখানে যাতায়াতের সময় অনেক কঠিন সমস্যার সম্মুখীন হতে হত ক্রোয়েশিয়ার মানুষদের। তবে এখন সময় পাল্টিয়েছে, এবার খুব সহজেই পেলজেসাইকাক ব্রিজ দিয়ে যাতায়াত করতে পারবেন ক্রোয়েশিয়ার মানুষরা। এই সেতুর দৈর্ঘ্য ২ হাজার ৪৪০ মিটার এবং প্রস্থ ২২.৫ মিটার।

বিজ্ঞাপন

এই দুটি সেতু নির্মাণ করার দায়িত্ব নিয়েছিল চীন। আর তাঁদের এহেন প্রকল্পের কারণেই অবশেষে চীন এবং ক্রোয়েশিয়ার মধ্যে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক তৈরি হল। এই সেতুর মডেল প্রকল্প চীনা সরকারের। আর এটি তৈরি করতে খরচ হয়েছে প্রায় ৪ হাজার ২৭৪ কোটি টাকা। আর এই সেতুর জন্যই পেলজেসাক উপদ্বীপ ও দুব্রোভনিকের (Dubrovnik) সঙ্গে সংযোগ সহজতর হল ক্রোয়েশিনায়ার। এই দুটি অংশ আগে বিচ্ছিন্ন ছিল ক্রোয়েশিনায়ার সঙ্গে।

এই বছর চীন ও ক্রোয়েশিয়ার কুটনৈতিক সম্পর্কের ৩০ তম বর্ষ পূর্ন হল। চীনা কোম্পানি এই ব্রিজটি তৈরি করার কারণেই দুই দেশের মধ্যে বন্ধুতা চরম পর্যায়ে পৌঁছল। যার ফলে দুই দেশের নাগরিকদের মধ্যেও সুসম্পর্ক তৈরি হচ্ছে। দুই দেশের মধ্যে কূটনৈতিক ও পারস্পরিক সম্পর্কেরও উন্নতি হচ্ছে।

২.৪ কিমি ক্যাবল দিয়ে তৈরি করা হয়েছে এই সেতুটিকে। যা প্রায় ১.৫ মাইল বিস্তৃত। এই ব্রিজটিতে ৬ টি পিলার স্থাপন করা হয়েছে, যা ক্রোয়েশিয়ার থেকে পেলজেসাইকাক উপদ্বীপ দিয়ে গিয়েছে। আর এই ব্রিজটি ক্রোয়েশিয়ার সমুদ্রের দক্ষিণ অংশের সঙ্গে যুক্ত হয়েছে। কয়েকদিন আগেই সেতুটি উদ্বোধন করা হলো গান বাজনার মধ্য দিয়ে।

Related Articles