×
নিউজ

বাতিল হল ৬ লক্ষ আধার কার্ড! আপনিও কি আছেন এই লিস্টে? রইল বিস্তারিত

বিজ্ঞাপন

ভারতীয় নাগরিকদের অন্যান্য আইডি প্রুফের থেকে সম্পূর্ন আলাদা হল আধার কার্ড (Aadhaar Card)। কারণ এতে রয়েছে ভারতের সকল নাগরিকদের বায়োমেট্রিক তথ্য। কারণ আধার কার্ড করার সময়ে প্রয়োজন ভারতের প্রতিটি নাগরিকের আঙুলের ছাপ, চোখের রেটিনা স্ক্যান। এই কারণেই বলা হয়েছে যে, ভারতীয়দের অন্যান্য আইডি প্রমাণ যেমন রেশন কার্ড, প্যান কার্ড, ড্রাইভিং লাইসেন্স থেকে আলাদা হল আধার কার্ডের নথি। পাশাপাশি আধার কার্ডে লিপিবদ্ধ থাকে প্রত্যেক নাগরিকের প্রয়োজনীয় ডেটা, যেমন সেই ব্যক্তির নাম, ছবি, জন্ম তারিখ, বাড়ির ঠিকানা ইত্যাদি। তবে নাগরিকদের সুবিধার জন্য অনেক ধরনের আধার কার্ড তৈরি করা হয়েছে। আর সব নাগরিকদের আধার কার্ডে ইউনিক আইডেন্টিফিকেশন নম্বরও রয়েছে। তবে সম্প্রতি শোনা গিয়েছে, প্রায় ছয় লাখ মানুষের আধার কার্ড বাতিল করে দেওয়া হয়েছে। গত ২০ জুলাই সংসদে কেন্দ্রীয় তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রকের রাষ্ট্রমন্ত্রী রাজীব চন্দ্রশেখর এই গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছেন। তবে জানেন কি, এই বাতিল করা আধার কার্ডের মধ্যে কাদের কাদের আধার কার্ড রয়েছে, তা জেনে নিন –

বিজ্ঞাপন

১. জানা গিয়েছে প্রায় ৬ লাখ মানুষের আধার কার্ড বাতিল হয়েছে। না অবাক হওয়ার কিছু নেই, সেই সকল আধার কার্ড একটাও আসল নয়, সবটাই নকল, আর নকল করা আধার কার্ডগুলিই বাতিল করে দিয়েছে ইউনিক আইডেন্টিটিফিকেশন অথরিটি অব ইন্ডিয়া অর্থাৎ UIDAI।

২. গত ২০ জুলাই ভুয়ো আধার কার্ড সংক্রান্ত একটি প্রশ্নের জবাবে কেন্দ্রীয় তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রকের রাষ্ট্রমন্ত্রী রাজীব চন্দ্রশেখর সংসদে জানিয়েছেন, বাতিল করে দেওয়া হয়েছে মোট ৫,৯৮,৯৯৯ টি ভুয়ো আধার কার্ড। আর সঙ্গে জালিয়াতি রুখতে আধার কার্ডের জন্যে বাড়তি সুরক্ষা যুক্ত করা হয়েছে।

৩. প্রথম থেকেই ভুয়ো আধার কার্ড ব্যবহার করে জালিয়াতির অভিযোগ উঠত। আর এই প্রতারনার শিকার হতেন সাধারণ মানুষেরা। এই কাজ হামেশাই হত। ভুয়ো আধার কার্ড ব্যবহার করে বহুবার জালিয়াতির অভিযোগও উঠেছে।

৪. কেন্দ্রীয় মন্ত্রী আরও জানিয়েছেন, আধার কার্ড দিয়ে যাতে আর জালিয়াতি না করা যায়, সেই জন্য বাড়তি সুরক্ষা ব্যবস্থা করা হচ্ছে। এক্ষেত্রে যাঁরা নতুন আধার কার্ড নথিভুক্ত করছেন, তাঁদের ক্ষেত্রে ‘ফেস’ প্রযুক্তি এবং ফিঙ্গারপ্রিন্ট ব্যবস্থা গ্রহণ করা থাকবে।

Related Articles