×
লাইফস্টাইল

বাড়িতে টিকটিকির উৎপাতে নাজেহাল! মুক্তি পেতে মেনে চলুন এই টিপস, রইল বিস্তারিত

বিজ্ঞাপন

আগে বলা হতো নতুন বাড়িতে টিকটিকি থাকে না। তবে এসব এখন অতীত, বাড়ি পূরণ হোক বা নতুন টিকটিকি থাকেই। বাড়ির দেওয়া বা টিউবলাইটের পেছনে টিকটিকি দেখতে না পেলে বাড়িকে বাড়ি বলে মনে হয় না। আমরা সবাই জানি টিকটিকি একটি ছোট আর নিরীহ দেখতে প্রাণী হলেও আসলে একটি ক্ষতিকর প্রাণী। কোনভাবে গায়ের ওপরে টিকটিকি পড়লে তা থেকে নানান রকম সংক্রমণ জনিত রোগের সম্ভাবনা দেখা দিতে পারে। এছাড়া টিকটিকির চামড়া, মলমূত্র এক প্রকার ক্ষতিকারক এবং তীব্র বিষ। বাজারের থেকে কেনা টিকটিকি তাড়ানো ঔষধি স্প্রে কিনলেও চিরও দিনের জন্যে এদের দমন করা যায় না। টিকটিকির উপদ্রব শেষ করার উপায় কারোর জানা নেই। তবে কিছু ঘরোয়া উপায়ে দ্বারা বাড়িতে টিকটিকির উপদ্রব কম করা যেতে পারে। আসুন জেনে নেওয়া যাক সেই পদ্ধতি গুলি :

বিজ্ঞাপন

• টিকটিকি কোন প্রকার উগ্র গন্ধ সহ্য করতে পারে না। বিশেষ করে ন্যাপথলিনের উগ্র গন্ধ সহ্য করতে পারে না। এমন অবস্থায় আপনি বাড়ি থেকে টিকটিকি তাড়াতে টিকটিকি যেখানে থাকে সেখানে ন্যাপথলিন রেখে দিলে টিকটিকি পালিয়ে যাবে।

• টিকটিকির গায়ে ঠান্ডা জল দিয়ে দিলে টিকটিকি মরে যেতে পারে। কারণ সরীসৃপ প্রাণী তাই ঠান্ডা জলের ছিটেয় এদের স্নায়ু দুর্বল হয়ে যাবে।

• এছাড়াও টিকটিকি মুক্ত বাড়ি পেতে বা এলাকা পেতে ফিনাইল ট্যাবলেটের ব্যবহার করতে পারেন। এতে টিকটিকির উপদ্রপ কমে যাবে।

• তামাক আর টিকটিকির একটি গভীর শত্রুতা রয়েছে। সেই জন্যে তোমাকে গুঁড়ো দিয়ে একটু শক্ত পেস্ট বানিয়ে ছোট ছোট গোল আকারে গড়ে নিতে হবে। এরপরে বাড়ির যে সকল স্থানে টিকটিকিদের দেখতে পাওয়া যায় সেখানে রেখে দিলেই এদের উপদ্রপ থেকে রেহাই পাবেন।

• আগেই জানি আমরা টিকটিকি উগ্র গন্ধ সহ্য করতে পারে না। তবে আপনি জানেন কী ডিমের খোসার গন্ধে টিকটিকিদের ইন্দ্রিয় দুর্বল হয়ে পড়ে। সেই জন্যে সে সকল জায়গায় টিকটিকি বেশি দেখতে পাওয়া যায় সেই সমস্ত যায় গুলিতে ডিমের খোসা ঝুলিয়ে দিন।

• সাবধানতা অবলম্বন করে একটি স্প্রে বোতলে জলের মধ্যে গোলমরিচ গুঁড়ো এবং লঙ্কা গুঁড়ো মিশিয়ে নিন। এরপরে টিকটিকির উপদ্রপ এলাকা বা টিকটিকির উপরে সেই জল স্প্রে করে দিন।

• এটা অনেক পূরণ কথা বাড়িতে আসল ময়ূরের পালক রাখলে টিকটিকি থাকে না।

• তীব্র গন্ধের সাথে টিকটিকি পেঁয়াজ – রসুনের গন্ধ সহ্য করতে পারে না। সেই জন্যে বাড়ির নানা কোনায়, জানলার উপরে – নীচে পেঁয়াজ ও রসুনের কোয়া রেখে দিন।

• বাড়ির ফটো ফ্রেম নিয়মিত পরিষ্কার করুন। কারণ ফ্রেমের পেছনে টিকটিকিরা লুকিয়ে থাকে।

• বাড়ি ঘর জীবাণুনাশক দিয়ে নিয়মিত পরিষ্কার করলে বাড়িতে কীটপতঙ্গের বাড়বাড়ন্ত থাকবে না। আর এরা না থাকলে টিকটিকি থাকবে না। কারণ বাড়িতে থাকা কীটপতঙ্গের লোভে টিকটিকি থাকে। তবে জীবাণুনাশক ব্যবহার করার সময় সাবধানে করবেন এবং নিজের নাক – মুখ বেধে নেবেন।

উপরের বলা উপায় গুলি ঠিক ভাবে প্রয়োগ করলে খুব সহজেই টিকটিকির উপদ্রব থেকে আপনার বাড়ি বা এলাকা মুক্তি পেতে পারে।

Related Articles