×
লাইফস্টাইল

কমলালেবুর খোসা ফেলে না দিয়ে ব্যবহার করুন রূপচর্চায়, রইল বিস্তারিত

বিজ্ঞাপন

আমাদের শরীরে প্রোটিন যোগাতে মাছ, মাংস, ডিমের পাশাপাশি প্রয়োজন হয় বিভিন্ন ধরনের ফল ও শাকসবজি আহারের। আর ফলের মধ্যে ভিটামিন সি যুক্ত ফল কমলালেবু আমাদের সকলেরই খাওয়া উচিত। কেননা, এর মধ্যে রয়েছে বহু পুষ্টিগুণ। তবে, আমরা কমলালেবু খেয়ে এর খোসা ফেলে দিই। কিন্তু আপনারা কি জানেন, রূপ চর্চার ক্ষেত্রে এক বিশেষ ভূমিকা পালন করে কমলালেবুর খোসা? মাথায় খুশকির সমস্যা থেকে শুরু করে মুখে ব্রনের দাগ ও কালো দাগ সবেতেই বাজিমাত কমলালেবুর খোসা। তবে কিভাবে কমলালেবুর খোসা রূপচর্চার ক্ষেত্রে ব্যবহার করবেন তাইতো? সে বিষয়ে জেনে নিন বিস্তারিতভাবে-

বিজ্ঞাপন

কমলালেবুর খোসার মধ্যে কেবল পুষ্টিগুণ নয়, রয়েছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের মতো আরো বহুগুণ। এছাড়া কমলালেবুর ভিতরে মাংসলির চেয়ে খোসায় ভিটামিন সি এর পরিমাণ অনেক বেশি থাকে। তাই কমলালেবু খাওয়ার পাশাপাশি এর খোসা ফেলে না দিয়ে তা রূপচর্চার ক্ষেত্রে ব্যবহার করুন।

১) ত্বকের কালো দাগ দূর করতে-

প্রথমে কমলালেবুর খোসা রোদে শুকিয়ে গুঁড়ো করে নিন। এবারে গুঁড়ো করা কমলালেবুর খোসার মধ্যে ২ চামচ টক দই দিয়ে ভালোভাবে মিশিয়ে নিন। তারপর মুখে মেখে নিন। এটি সপ্তাহে ২ দিন ব্যবহার করতে পারলেই আপনার ত্বক একেবারে পরিষ্কার হয়ে উঠবে।

২) ত্বক ফর্সা করতে-

কমলালেবুর খোসা গুঁড়ো করে এর মধ্যে অ্যালোভেরা জেল মিশিয়ে রাতে ঘুমানোর আগে মুখে মেখে শুয়ে পড়ুন। পরের দিন সকালে পরিষ্কার জল দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। এটি পরপর সাত দিন ব্যবহার করলেই এর ফল হাতে নাতে পেয়ে যাবেন।

৩) ত্বক নরম করতে-

কমলালেবুর খোসা গুঁড়োর সঙ্গে ২ চামচ চালের গুঁড়ো ও পরিমাণমতো কাঁচা দুধ মিশিয়ে স্নানের আগে মুখে মেখে আধ ঘন্টা রেখে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে তিন দিন এটি ব্যবহার করলে আপনার ত্বক নরম তুলতুলে হয়ে উঠবে।

৪) চুলের খুশকি দূর করতে-

এরজন্য কমলালেবুর খোসার মধ্যে টক দই এবং পাতিলেবুর রস ভালোভাবে মিশিয়ে চুলে লাগিয়ে ম্যাসাজ করুন। তারপর এটি আধঘন্টা মাথায় রেখে শ্যাম্পু করে ধুয়ে ফেলুন। এটি সাপ্তাহে তিনদিন ব্যবহার করলেই খুশকির সমস্যা থেকে অতি সহজেই মুক্তি পাবেন।

৫) চুলের সিরাম হিসাবে-

পরিমাণ মতো জলের মধ্যে লেবুর খোসা গুঁড়ো করে দিয়ে সামান্য ফুটিয়ে নিন। এবারে এই জলটি একটি বোতলে রেখে ব্যবহার করতে থাকুন। দেখবেন চুল অনেক সুন্দর হয়ে উঠেছে। চাইলে আপনারা এই মিশ্রণটি তৈরি করে ফ্রিজে স্টোর করে রাখতে পারেন।

Related Articles