×
লাইফস্টাইল

প্রেম করছেন! বিয়ের আগে পার্টনারের কাছ থেকে অবশ্যই জানুন এই ৪টি বিষয়, রইল বিস্তারিত

বিজ্ঞাপন

সবারই জীবনে স্বপ্নগুলির মধ্যে একটি প্রেম করে বিয়ে করা। সঠিক পার্টনার খুঁজে বিয়ে করা। তবে পার্টনারকে কিছুদিন বা কয়েক বছর প্রেম করে বিয়ে করুন। আর বিয়ের পরেই হানিমুনে যাওয়ার একটি তাড়াহুড়ো। তবে সবটাই ভাগ্য। ভাগ্যের পরিণাম যদি খারাপ হয়, তাহলে সঠিক পার্টনার খুঁজেও বিপাকে পড়তে হয় বিয়ের পরে। তখন স্বাভাবিকভাবেই চিন্তায় পড়তে হয় যে, এত বছর প্রেম করে মানুষ চিনতে পারলাম না। অথচ ধুমধাম করে বিয়ে করেও কোনও কাজের কাজ হয় না। বিয়ের পরে যখনই পার্টনারের অভিমত বদলাতে থাকে তখনই লেগে যায় ঝামেলা। আর সেই বিয়ে টেকাতে অনেক কারসাজি করলেও তা শেষপর্যন্ত আর টেকে না, সম্পর্কের বাঁধনের উপর হার মানতে হয়। তখনই দীর্ঘ দিনের সম্পর্ক ভেঙে চূর্ণ হয়ে যায়। কিন্তু জানেন কি, এর প্রকৃতপক্ষে কি কারণ? বলবো এই বিষয়ে প্রধান চারটি কারণ।

বিজ্ঞাপন

১) সিঙ্গেল নাকি জয়েন্ট ফ্যামিলি – প্রেম করার সময় শুধুই মনের মানুষটির সম্পর্কে, পার্ক, রেস্তোরাঁ বা উপহার দেওয়া নেওয়া সম্পর্কেই যাবতীয় ধ্যানধারনা থাকে। কিন্তু, বিয়ের পর যেই সিঙ্গেল ফ্যামিলি বা জয়েন্ট ফ্যামেলিতে থাকার প্রসঙ্গ ওঠে তখনই লেগে যায় ঝামেলা। তাই বিয়ের আগে এই ব্যাপারে অবশ্যই যাচাই করে নিন।

২) বাড়ির কোন কাজ কাকে করতে হবে – সংসারে প্রবেশ করা মানে প্রত্যেককেই কম বেশি কাজ করতেই হয়। তাই মনের মানুষের বাড়ির হালচাল বিয়ের আগে থেকে জেনে নিন, সঙ্গে আদব কায়দাও। এমনকি একা থাকলেও পরিচারিকা রাখবেন কিনা জেনে নিন।

৩) সংসার খরচ – প্রেম করার সময় দেখছেন ঘন ঘন সিনেমা হল, দীঘা, মন্দারমণি, কিংবা হোটেল রুম নিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু বিয়ের পর সবটাই গায়েব। কারণ, বিয়ের পরে বাড়তি সংসার খরচের বোঝা নিতে হয়। যে কারণে আগের আনন্দ আর থাকে না। তাই বিয়ের আগে সংসার কি ভাবে চালনা করতে হবে, তা আগেভাগেই জেনে নিন।

৪) সন্তান নেওয়া বা ফ্যামিলি প্ল্যানিং – বহু বছর প্রেমের পর বিয়ে করলেই সন্তান নেওয়ার ইচ্ছা সবার আগে জাগে মনের মধ্যে। তাই সন্তান কখন নেবেন তা বিয়ের আগেই সঙ্গীর সঙ্গে আলোচনা করে নিতে পারেন।

Related Articles