×
লাইফস্টাইল

দুপুরের খাবারে ডিম ও আলু দিয়ে বানিয়ে ফেলুন এই সুস্বাদু খাবার, শিখে নিন রেসিপি

বিজ্ঞাপন

ডিম খেতে ভালোবাসেন না এমন কেউ নেই, আট থেকে আশি সবার কাছেই ডিমের কোনো তুলনা নেই। সকাল, দুপুর, রাত সবসময়েই পাতে একটা ডিম থাকলে একেবারে জমে যায়। ওদিকে আলুও সবার প্রিয়, ধনী-গরিব সবার কাছেই আলু সবথেকে প্রিয় সবজি। হ্যাঁ, আজ ডিম এবং আলুর একটি জমজমাটি রেসিপির খোঁজ দেবো আপনাদের। চলুন দেরি না করে জানিয়ে দেওয়া যাক এই রেসিপি তৈরির পদ্ধতি।

বিজ্ঞাপন

উপকরণ:

দুটো আলু,
দুটো ডিম,
সামান্য পরিমাণে হলুদের গুঁড়ো,
হাফ চামচ লাল লঙ্কার গুঁড়ো,
স্বাদ অনুযায়ী লবন,
একটা ছোট্ট সাইজের পেঁয়াজ কুচি করে কাটা,
কুচি করে কেটে রাখা ধনে পাতা,
২ চামচ বেসন,
১ চামচ জিরে ও ধনে গুঁড়ো,
টমেটো বাটা ও
১ চামচ আদা ও রসুন বাটা
সরষের তেল

প্রণালী:

দুটি আলুকে ভাল করে পরিষ্কার করে গ্রেটারে গ্রেড করে নিন। এরপর তা ভাল করে জল দিয়ে ধুয়ে নিন। এরপর ভালো করে জল ঝরিয়ে তার মধ্যে দুটি ডিম ফাটিয়ে দিয়ে দিন। এরপর তার মধ্যে সামান্য পরিমাণে হলুদের গুঁড়ো, হাফ চামচ লাল লঙ্কার গুঁড়ো, স্বাদ অনুযায়ী লবন, একটা ছোট্ট সাইজের পেঁয়াজ কুচি করে কেটে এরমধ্যে দিয়ে দিন। এরপর এর মধ্যে কুচি করে কাটা ধনে পাতা মিশিয়ে এগুলোকে ভালো করে মিশিয়ে নিন। মেশানো হয়ে গেলে এর মধ্যে দু চামচ বেসন দিয়ে দিন। এরপর সবগুলো ভালো করে মিশিয়ে একপাশে রেখে দিন।

এরপর গ্যাসে কড়াই বসিয়ে তার মধ্যে ২ চামচ সরষের তেল দিয়ে তেল গরম করে নিন। এরপর পুরো মিশ্রণটি ওই তেলের মধ্যে দিয়ে দিন। এরপর চারিদিকে সমান করে নিয়ে এর উপর একটি ঢাকনা দিয়ে ঢেকে গ্যাস লো আঁচে করে ৪ থেকে ৫ মিনিট রেখে দিন। এরপর ঢাকনা উঠিয়ে খাবারটি উঠিয়ে নিন। দেখবেন খাবারটি একপাশ ভাজা হলেও এক পাশ হয় নি। এরপর আরেক পাশ তেল দিয়ে ভেজে নিন ঠিক একইভাবে। এরপর ভাজা হয়ে গেলে একপাশে খাবারটি তুলে রাখুন।

তারপর আরেকটি কড়াই বসিয়ে তার মধ্যে তেল দিয়ে গরম করে। একেক করে ২ টি মাঝারি সাইজের পেঁয়াজ কুচি দিয়ে দিন। পেঁয়াজ ভাজা ভাজা হয়ে গেলে, তার মধ্যে ১ চামচ আদা রসুন বাটা দিয়ে ভালো করে কষিয়ে নিন। এরপর এর মধ্যে একটি টমেটো পিউরি নিয়ে সেটাকে কষিযে তার মধ্যে হাফ চামচ ধনে, জিরে গুঁড়ো, এবং স্বাদ অনুযায়ী লবন দিয়ে ভালো করে কষিয়ে নিন।

এরপর আগে ডিম ও আলুর যে খাবারটি বানিয়ে রেখেছিলেন সেটিকে পিস পিস করে কেটে এই মশলার মধ্যে দিয়ে দিন। এরপর সেটিকে জল দিয়ে ভালো করে রান্না করে নামালেই তৈরি ডিম ও আলুর ধোকা। এরপর খাবারটি পরিবেশন করার আগে একটি ধনে পাতা ছড়িয়ে দিন।

দুপুরের ভোজন তালিকায় এই নতুন পদটি একবার যোগ করে দেখুন, দেখবেন মাছ মাংসের স্বাদকেও টেক্কা দিচ্ছে এই রেসিপি। তাহলে দেরি না করে আজই বাড়িতে বানিয়ে ফেলুন ডিম ও আলুর ধোকা।

Related Articles