×
লাইফস্টাইল

দুপুরে ভাতের সঙ্গে খাবার জন্য সুস্বাদু উচ্ছের রেজালা, শিখে নিন রেসিপি

বিজ্ঞাপন

রেজালা! নাম শুনলে জিভে জল চলে আসা বাধ্য। আর এটি যদি হয় চিকেন বা মটনের রেজালা তাহলে তো পুরো জমে ক্ষীর তাই না। তবে আজ যে চিকেন বা মটনের কোন রেজালা নয়, নিয়ে এসেছি উচ্ছে রেজালা রেসিপি নিয়ে। বিশেষ করে খুদেদের জন্য। কারন কড়লা বা উচ্ছের নাম শুনলেই বাচ্চারা এর থেকে দশ হাত দূরে থাকতেই ভালোবাসে। তবে, আর চিন্তা নেই এই রেসিপিটি যদি আপনারা একবার বাচ্চাদের খাওয়াতে পারেন তাহলে আর নো টেনশন। একেবারে আঙুল চেটে খাবে তারা। চলুন তাহলে আর দেরি না করে জেনে নিন উচ্ছে রেজালা তৈরির প্রণালী-

বিজ্ঞাপন

উপকরণ-

উচ্ছে
আদা কুচি
শুকনো লঙ্কা
তেজপাতা
দারুচিনি
ছোট এলাচ
টক দই
পোস্ত বাটা
কাজু বাদাম বাটা
চালমগজ বাটা
ধনে শুকনো
লাল লঙ্কার গুঁড়ো
গরম মসলার গুঁড়ো
লবণ
চিনি
সাদা তেল
ঘি

প্রনালী-

প্রথমে ৬-১০ টি উচ্ছে নিয়ে লম্বাভাবে চার টুকরো করে কেটে বিজ ফেলে দিন। এবার পরিমাণ মতো জলে সামান্য লবণ মিশিয়ে কেটে নেওয়া উচ্ছেগুলি সিদ্ধ করে নিন।

এরপর কড়াইয়ে পরিমাণ মতো সাদা তেল গরম করে সিদ্ধ করা উচ্ছেগুলি বেশ কড়া করে ভেজে নিন। এবার ঐ একই গরম তেলে ২ টি শুকনো লঙ্কা, ১ টি তেজপাতা, ১ টি দারুচিনি, ২ টি ছোট এলাচ ফোড়ন দিয়ে নাড়াচাড়া করে নিন।

ফোড়ন থেকে মিষ্টি গন্ধ বের হলে ১ ইঞ্চ আদা কুচি দিয়ে সামান্য নাড়াচাড়া করে ২-৩ চামচ টক দই, ৪-৫ চামচ পোস্ত, চালমগজ ও কাজু বাদাম বাটা দিয়ে ভালো করে কষিয়ে নিন। এবার এর মধ্যে সামান্য জল, স্বাদমতো লবণ ও চিনি, ১ চা চামচ ধনে গুঁড়ো, লাল লঙ্কার গুঁড়ো এবং ১ চামচ গোলাপ জল দিয়ে রান্না করে নিন।

এবারে কষানো মশলা থেকে তেল ছেড়ে এলে ভেজে রাখা উচ্ছের টুকরোগুলা দিয়ে দিন। তারপর মশলার সঙ্গে উচ্ছে সামান্য হাতে নাড়াচাড়া করে পরিমাণ মত জল মিশিয়ে নিন। এবারে গ্যাসের ফেম মিডিয়ামের রেখে ৫-৭ মিনিট গ্রেভি ফুটিয়ে নিন।

এক্ষেত্রে বেশি জল ব্যবহার করবেন না কারণ এটি বেশ ঘন হবে। সবশেষে, ওপর থেকে ১ চামচ ঘি ও হাফ চা চামচ গরম মশলার গুঁড়ো ছড়িয়ে সামান্য নাড়াচাড়া করে গরম গরম ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন দুর্দান্ত স্বাদের উচ্ছে রেজালা।

Related Articles