×
লাইফস্টাইল

কাঁঠালের বীজ ফেলে না দিয়ে ব্যবহার করুন এই উপায়ে, রইল বিস্তারিত

বিজ্ঞাপন

পড়েছে গরমকাল, আর গরমকাল মানেই বাজারে আম, কাঁঠালের ছড়াছড়ি। আর বাজার থেকে লোভে পড়ে আম-কাঁঠাল এনে বাড়ির ফ্রিজ ভরিয়ে রাখা। এই গন্ধই যেন প্রাণের উচ্ছ্বাস আরও বাড়িয়ে দেয়। নিজেদের খাওয়ার জন্যে দুপুরের পর এই ফলের থেকে ভাল আর কিছু হতে পারেনা।

বিজ্ঞাপন

পাশাপাশি বাড়িতে অতিথিদের এলো তাঁদেরও তেলে ভাজাভুজি না দিয়ে, আম-কাঁঠাল খাওয়ান, দেখবেন তাঁরা আরও প্রসন্ন হবে। যাদের বাড়িতে কাঁঠাল বা আম গাছ আছে তাদের তো পোয়া বারো। কিন্তু জানেন কি, কাঁঠালের পাশাপাশি কাঁঠালের বীজও সমান উপকারী। তাই কাঁঠাল খাওয়ার পর কাঁঠালের বীজ একেবারেই ফেলবেন না। হ্যাঁ, আজ আমরা সেটাই জানাবো আপনাদের। চটজলদি দেখে নিন কাঁঠাল বীজের পাঁচটি উপকারিতা –

১) কাঁঠালের বীজ ত্বক পরিষ্কার করতে খুব উপকারী। প্রতিদিনের ডায়েটে রাখতেই পারেন কাঁঠাল বীজ। শুকনো কাঁঠালের বীজ মিক্সিতে গুঁড়ো করে স্ক্রাবার হিসেবে ফেস প্যাক এর সঙ্গে ব্যবহার করতে পারেন। তাতে ত্বক অনেক বেশি উজ্জ্বল হয়। এছাড়াও কাঁঠালের বীজ চুল ভাল রাখতে সাহায্য করে, আপনার চুল ভেতর থেকে পুষ্টি রাখে।

২) অকালবার্ধক্য দূর করতেও কাঁঠালের বীজের জুড়ি মেলা ভার। নিয়মিত ডায়েটে কাঁঠালের বীজ রাখলে অকালে বার্ধক্য আসবে না। কাঁঠালের বীজ ভালো করে পেস্ট করে দুধের সরের সঙ্গে লাগান।তাহলে আপনার ত্বক বাইরে থেকে অনেক বেশী সুন্দর এবং টানটান থাকবে। এছাড়া মানসিক চাপ থেকে মুক্তি পেতে চাইলে অবশ্যই কাঁঠালের বীজ ব্যবহার করুন। কাঁঠালের বীজ প্রতিদিন শাক চচ্চরি বা বাদামের সঙ্গে খান। এছাড়া কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতেও কাঁঠালের বীজ উপকারী। কাঁঠালের বীজ যদি নিয়মিত কেউ খেতে পারেন তাহলে আপনার পেট পরিষ্কার খুব সহজেই দূর হবে।

Related Articles