×
লাইফস্টাইল

ফুসফুসের সব বিষ নিরাময় করতে মেনে চলুন এই উপায়! জানুন আয়ুর্বেদ চিকিৎসকের পরামর্শ

বিজ্ঞাপন

নানান অছিলায় আমাদের শরীরে প্রবেশ করছে বিষ, যাতে আহত হচ্ছে আমাদের ফুসফুস। আর আমাদের শরীরের সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ একটি অঙ্গ হল ফুসফুস। তাই এই অঙ্গটিকে সুস্থ রাখা খুবই জরুরি। আর এই ক্ষেত্রে কাশি নিয়ন্ত্রণ করে অথবা, স্টিম থেরাপির (Steam Therapy) মাধ্যমে এই বিষ বের করে দেওয়া সম্ভব। এই বিষয়ে বিশেষ পরামর্শ দিয়েছেন, কে.জে, সোমাইয়া হাসপাতাল অ্যান্ড রিসার্চ সেন্টারের আয়ুর্বেদ বিভাগের প্রধান ডা: স্বপ্না কদম (Doctor Swapna Kadam)। তিনি কয়েকটা পদ্ধতি বিশ্লেষণ করে জানিয়েছেন যে, মুলত ফুসফুসে সমস্যা কোন কোন কারণে হয়-

বিজ্ঞাপন

বায়ু দূষণ, ধূমপান, খারাপ কেমিক্যাল ও ধুলো এবং নিয়মিত ঠান্ডা ও শুষ্ক বাতাসে থাকলে এই সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়। সাধারণত ফুসফুস নিজে থেকেও পরিষ্কার (Detox Lungs) হয়ে যেতে পারে আবার আপনি নিজে থেকেও ফুসফুসকে পরিষ্কার করতে পারেন। এমনকী নিজের প্রচেষ্টাতেও শরীরে জমে থাকা কফকে বের করে দিতে পারেন। আসলে সিগারেট খেলে বা ধুলো, বালি, ময়লার সংস্পর্শে এলে ফুসফুসের (Lungs) গুরুতর ক্ষতি হয়। আর এই অবস্থাতে শরীরে তৈরি হয় প্রদাহ, আর সেই অংশেই তৈরি হয় মিউকাস। তবে এই পরিস্থিতিতেও সুস্থ ফুসফুস নিজের কাজটা ঠিকমতোই করে যায়, নিজে থেকেই বের করে দেয় জমা কফ।

জেনে নিন ফুসফুস ভালো রাখার কয়েকটি প্রাকৃতিক উপায়

আসলে আমাদের মধ্যে অনেকেই ফুসফুসের সমস্যায় ভোগেন। যাঁদের ভারী কাজ করতে গেলেই, হাঁপিয়ে যান। সেই কারণে কয়েকটি কাজ অবশ্যই করুন এবং প্রাকৃতিক উপায়ে ফুসফুস পরিষ্কার করুন। কি সেই ৫ টি উপায় জেনে নিন।

১. ​ফুসফুস পরিষ্কার করতে স্টিম থেরাপি (Steam Therapy)। ফুসফুস ভাল রাখার জন্যে এই পদ্ধতি খুব ব্যবহার উপযোগী। এক্ষেত্রে জল গরম করে, সেই জলের ধোয়া নাক, মুখ দিয়ে টেনে নিতে হয়। এর মাধ্যমে কফ নরম হয়ে এয়ারওয়ের মুখ খুলে দেয়।

২. এছাড়াও ফুসফুস পরিষ্কারের প্রাকৃতিক উপায়ও রয়েছে। এক্ষেত্রে নিয়ন্ত্রিতভাবে কাশলে ফুসফুস পরিষ্কার করে ফেলা সম্ভব। একটি চেয়ারে বসে পেটের কাছে নিজের হাত ভাঁজ করে নিন। এরপর নাক দিয়ে ধীর ধীরে শ্বাস নিন। এবার সামনের দিকে ঝুকে পেটের মধ্যে হাত রেখে শ্বাস ছাড়ুন। শ্বাস ছাড়ার পর মুখ খুলে দুই-তিনবার কাশুন। ফের শ্বাস নিন। এই কৌশলে কাশুন। এভাবেই কয়েকবার করলে কফ বেরিয়ে যাবে।

​৩. ব্যায়াম (Exercise), নিয়মিত ব্যায়াম করলে মানসিক ও শারীরিকভাবে সুস্থ থাকবেন। ফুসফুসও ভালো থাকে। আসলে এক্সারসাইজ মাসলকে ভালো রাখে, এবং এক্সারসাইজ করার সময় ব্রিদিং (Breathing) রেট বেড়ে যায়। এই কারণে মাসলে অক্সিজেন পৌঁছে যায় এবং শরীর থেকে ভালো পরিমাণে কার্বন ডাই অক্সাইড বেরিয়ে যায়। তাই সতর্ক হয়ে যান আগে থেকেই।

​৪. ধূমপান ছেড়ে দিন: বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে, ধূমপান ফুসফুসের জন্যে খুবই ক্ষতিকারক। এমনকী ধূমপান ফুসফুসের ক্যানসারের কারণও হতে পারে। তাই আজই ছেড়ে দিন ধূমপান।

​৫. ফুসফুস পরিষ্কারে খাবার: ফুসফুস পরিষ্কার রাখতে আদা দারুণ উপকারী খাদ্য। কারন এই খাদ্যের মধ্যে রয়েছে অ্যান্টিইনফ্লেমেটরি গুণ। এই খাদ্য আপনার ফুসফুস থেকে খারাপ পদার্থ বের করে দিতে সাহায্য করে। ধূমপানের ধোয়াও বের করে দেয় এই খাবার। যার ফলে ফুসফুসের সারকুলেশন ঠিক থাকে। এছাড়া রসুনও এক্ষেত্রে দারুণ কার্যকরী। কারণ এতে রয়েছে, অ্যালিসিন। এই অ্যালিসিন ব্যাকটেরিয়া নাশ করে। এছাড়াও হলুদও খুব ভালো। এই খাবারে রয়েছে অ্যান্টিইনফ্লেমেটরি গুণ। যা ফুসফুস পরিষ্কার করতে সাহায্য করে।

এবার কিছু ঘরোয় উপায় (Home Remedies) জেনে নিন

আদার রস হাফ চামচ, হাফ চামচ তুলসীর রস ও একের চার ভাগ হলুদ ও দুই চিমটে মরিচ ও মধু নিন। এগুলি মিশিয়ে খেতে পারেন।

​ফুসফুস পরিষ্কারের যোগা ও প্রাণায়াম (Yoga and Pranayam):

ফুসফুস সুস্থ রাখতে যোগা ও প্রাণায়াম দারুণ কার্যকরী- যেমন, সুখাসন, ভুজঙ্গাসন, মৎসাসন, পদ্মসর্বাঙ্গসন, অর্ধ মৎসেন্দ্রাসন, অনুলোম বিলোম, নাড়ী শুদ্ধ ক্রিয়া করতে পারেন।

এছাড়াও আয়ুর্বেদ চিকিৎসাও করতে পারেন ফুসফুসের সুস্থতার জন্যে। এক্ষেত্রে ধূমপান (হার্বাল স্টিম থেরাপি), নস্য, বমনের মাধ্যমে সমস্যা মিটতে পারে।

Related Articles