×
লাইফস্টাইল

হাই সুগারের সমস্যায় আক্রান্ত! নিয়ন্ত্রণ করতে মেনে চলুন পাতিলেবুর এই পাঁচটি টোটকা, রইল বিস্তারিত

বিজ্ঞাপন

মধুমেহ বা ডায়াবেটিস বর্তমানে এই রোগে আক্রান্ত ব্যাক্তির সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলেছে। আর এর ফলে কখন যে রক্তে শর্করার পরিমাণ বেড়ে যাবে তা বোঝা মুশকিল। তবে এক্ষেত্রে অনেকেই মনে করেন ডায়াবেটিস হওয়ার কারণ হয়ত মিষ্টি খাবার খাওয়া। তবে, যারা মিষ্টি খাননা তারা কি করে এই রোগে আক্রান্ত হন? আসলে সবটাই ভুল ধারণা। ডায়াবেটিস রোগীদের মিষ্টি খেলে সুগার বাড়ে ঠিকি কিন্তু শুধুমাত্র মিষ্টি খাওয়ার জন্য কেউ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হননা। তবে এসব পরের কথা; আপনারা যদি ডায়াবেটিসে আগে থেকেই আক্রান্ত হয়ে থাকেন তাহলে সুগার নিয়ন্ত্রণে রাখাটা অত্যন্ত জরুরী। আর অনেকেই হয়ত জানেননা সুগার নিয়ন্ত্রণ করতে একাই বাজিমাত করে পাতিলেবু। চলুন তাহলে আর দেরি না করে জেনে নিন সুগার নিয়ন্ত্রণে রাখতে পাতিলেবুর কয়েকটি টোটকা-

বিজ্ঞাপন

১) আপনি যদি ডায়াবেটিসের পাশাপাশি কোষ্ঠকাঠিন্য রোগ নিয়ন্ত্রনে রাখতে চান তাহলে অবশ্যই প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে উঠে গরম জলে পাতি লেবুর রস মিশিয়ে পান করুন।

২) প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে উঠে যদি এক গ্লাস করোলা, টমেটো ও শসার রসের সঙ্গে এটি পাতিলেবুর রস ভালোভাবে মিশিয়ে খেতে পারেন তাহলে দেখবেন সুগার অনেকখানি নিয়ন্ত্রণে এসেছে এবং এরসাথে ত্বকে এলার্জিও হবে না। রক্ত ভেতর থেকে একদম শুদ্ধ থাকবে।

৩) ভাতের সঙ্গে প্রতিদিন এক টুকরো করে লেবুর রস চিপে খেতে বসুন, দেখবেন এতে সুগার নিয়ন্ত্রণ হওয়ার পাশাপাশি হজম ক্ষমতা বেড়ে উঠেছে।

৪) বিকেলের জলখাবারে কাঁচা ছোলা, মটর নিয়ে এরমধ্যে শসা ও পেঁয়াজ কুচি মিশিয়ে তারমধ্যে পরিমাণমতো লেবুর রস ছড়িয়ে আহার করুন। দেখবেন এটি সুগার অনেক নিয়ন্ত্রণে রাখবে।

৫) দুপুরে বা সকালের খাদ্য তালিকায় শসা, পেঁয়াজ, গাজর, টমেটো এই সমস্ত সবজি কেটে স্যালাড হিসেবে খান। আর এর ওপর অবশ্যই পাতিলেবুর রস ছড়িয়ে নিন।

ব্যাস পাতিলেবুর এই পাঁচটি টোটকা ব্যবহার করলেই কিছুদিনের মধ্যে দেখবেন সুগার অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে এসেছে।

Related Articles