×
লাইফস্টাইল

দুপুরে ভরপেট খেয়ে অসস্তি করছে! রইল ৫টি সমাধান

বিজ্ঞাপন

সাপ্তাহের বিশেষ কিছু দিন হোক বা ছুটির দিন, এদিন সকলেই বাড়িতে বসে শান্তি মনে পেট ভরে খাবারের স্বাদ গ্রহণ করতে চান। এছাড়া, সকলেই নিজেদের দুপুরের খাদ্যতালিকাকে বেশ রাজকীয় করে তুলতে পছন্দ করেন। তাই বেশিরভাগটাই নিজেদের পছন্দের খাবার যুক্ত করে নেন। আর রাজকীয় খাবার মানেই জমিয়ে খাওয়া দাওয়া। তবে অনেক সময় কি হয়, নিজেদের পছন্দের খাবারগুলি অতিরিক্ত খাওয়ার পর একটু আধতু অসস্তি বোধ করে! সামনে প্রিয় খাবার থাকলে তা আনন্দের সঙ্গে উপভোগতো করি কিন্তু, অতিরিক্ত পরিমাণে খাবার পর শরীর খুব অস্বস্তি বোধ করে। যা অত্যন্ত ক্ষতিকর। তাই আপনাদের যদি মনে হয় আপনি অতিরিক্ত খেয়ে ফেলেছেন এবং অস্বস্তি বোধ করছেন তাহলে ঝটপট পালন করুন ছোট্ট টিপসগুলি। দেখবেন নিমেষেই মুক্তি পাবেন।

বিজ্ঞাপন

১) মশালাদার লেবু জল পান-

মশালাদার পানীয়গুলি হজম শক্তি বারিয়ে তুলতে সাহায্য করে। আর এর সঙ্গে যদি যুক্ত করেন লেবু তাহলে তা আরো বেশি ভালো কাজ করে। তাই গরম জলে লেবু ও এক চিমটে গোলমরিচ গুড়ো মিশিয়ি পান করুন। এটি আপনার শরীরকে ডিটক্স করতেন এবং অতিরিক্ত খাবার গুলি নির্মূল করে লিভারকে উদ্দীপিত করতে সাহায্য করে। এছাড়াও পেটে ব্যথা, গ্যাস, অ্যাসিড রিফ্লাক্সকে প্রশমিত করতে পারে।

২) পুদিনা খান-

খাওয়ার পর আপনার যদি মনে হয় অতিরিক্ত পরিমানে খেয়ে ফেলেছেন তাহলে একটি পুদিনার আছে এমন লজেন্স খান। এতে পেপারমিন্টে মেন্থল আছে, যা গ্যাস, বদহজম, বমি বমি ভাব দূর করতে সহায়ক। সাধারনত এটি আপনার পাকস্থলী ও খাদ্যনালীর মধ্যবর্তী ছিদ্রকে প্রশমিত করে পাকস্থলীর অ্যাসিডকে প্রবাহিত করতে সাহায্য করে।

৩) হারবাল চা পান-

হারবাল চা আপনার পরিপাকতন্ত্রের মাধ্যমে খাবারের গতিনিধি বাড়িয়ে অস্বস্তির হাত থেকে মুক্তি দিতে পারে। তাই এক্ষেত্রে, চিকোরি চা, গ্রিন টি আপনার পছন্দের যেকোনো হারবাল চা বেছে নিতে পারেন।

৪) এক চিমটি হলুদ-

হলুদের মধ্যে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। যার মাধ্যমে এটি শক্তিশালী অ্যান্টি ইনফ্ল্যামেটারি মসলা হিসেবে পরিচিত। তাই গরম জলে সামান্য লেবুর রস ও এক চিমটে হলুদ মিশিয়ে পান করে নিন দেখবেন অতিরিক্ত খাবার ফলে যে অস্বস্তি বোধ হচ্ছে তার থেকে সহজে মুক্তি পেয়ে যাবেন।

৫) হাঁটাচলা করুন-

শরীর অসুস্থ ভাব দূর করতে সবচেয়ে কার্যকরী হাঁটাচলা করা। তাই খেয়ে ওঠার পর সকলেরই উচিত সামান্য হাঁটাহাটি করে বসার। যার ফলে, শরীরে হজম প্রক্রিয়া গুলি উদ্দীপিত হয়। কিন্তু কোন দৌড়াদৌড়ি বা জগিং নয় মিনিট ১৫ নরমাল ভাবে হাঁটাচলা করুন।

অনেক সময় অতিরিক্ত খাবার খেলে হজম না হয়ে গ্যাসের সৃষ্টি করে এবং বমি হওয়ার ভয় থাকে। তাই অবশ্যই উপরিউক্ত টোটকা গুলি ব্যবহার করে নিন।

Related Articles