×
বিনোদন

সব বাঁধা পেরিয়ে কি শেষমেশ সম্পূর্ণ হবে চিঠি ও সাহেবের বিয়ে? রইল ভিডিও

বিজ্ঞাপন

বিয়ের পাকা কথা থেকে বিয়ের দিন সকাল অব্দি সব আচার অনুষ্ঠান নির্বিঘ্নে কেটে গেলেও বিয়ের মণ্ডপে চলছে একের পর এক ঘটনা। সাহেব আর চিঠির বিয়ের মণ্ডপে চলছে ঝগড়া আর তর্ক। একদিকে যেমন সাহেবের অবস্থা দেখে সবাই চমকে উঠেছে। তেমনি সাহেবের মায়ের সাথে বাবার চলছে ছেলের ভবিষৎ নিয়ে তর্ক। এর মাঝে সাহেবের বাবাকে উত্তপ্ত করার কাজটা খুব ভালো করে করছে রাইমা। প্রশ্ন হলো, এত সব পেরিয়ে সাহেব – চিঠির বিয়ের সুসম্পন্ন হবে তো?

বিজ্ঞাপন

বাংলার আইকন সাহেব চ্যাটার্জী সকলের মনে রাজত্ব করে। তবে সম্প্রতি এক দুর্ঘটনা সাহেবের জীবনটা ছারখার করে দিয়েছে। ওই একটি ঘটনার পরে সাহেব নিজেকে গুটিয়ে নিয়েছে সম্পূর্ন রূপে। তবে তার সেই বন্ধ দরজায় বার বার টোকা দিয়ে বাইরে সকলের সামনে সাহেবকে এনেছে চিঠি। আর সেই ব্যাপারটা সাহেবের মায়ের মনে চিঠির জন্যে একটা আলাদা জায়গা করে নিয়েছে। সেই জন্যেই নিজের ছেলের জন্যে চিঠির সাথে বিয়ে ঠিক করেছে সাহেবের মা।

অন্যদিকে মায়ের কথার মান রেখে পাত্রীর নাম না জেনেই বিয়েতে সম্মতি দিয়েছে সাহেব। তবে চিঠি সবটা জেনে সাহেবকে বিয়ে করতে রাজি হয়েছে। এই সব ব্যাপার রাইমার রাগ আর হিংসা কয়েক গুণ বাড়িয়ে দিয়েছে। সেই জন্যেই বিয়ের আগে নানান ভাবে অপমান করে সাহেবকে বিয়ে করতে বাঁধা দিয়েও যখন নিজের স্বার্থ চরিতার্থ করতে পারে না তখন সাহেবের বাবাকে নিয়ে বিয়ে আটকাতে বিয়ের মণ্ডপে উপস্থিত হয়।

আমরা সকলেই দেখেছি সাহেবের বাবা বিয়ে আটকে দিলে চিঠি পিড়ি থেকে নেমে পড়ে। এমন অবস্থায় চিঠিকে দেখে চমকে ওঠে সাহেব। আর অন্যদিকে সাহেবের বাবা চিঠিকে ছেলের বউ হিসেবে নির্বাচন করা নিয়ে সাহেবের মায়ের উপর চোটপাট করতে থাকে। এই সব দেখে বিয়ে বাড়িতে উপস্থিত সকলেই অবাক হোন। অন্যদিকে সাহেবের পায়ের অবস্থা জেনে এবং সব জেনে চিঠির বাড়ির লোক চমকে ওঠে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার হওয়া ভিডিওতে দেখতে পাওয়া যাচ্ছে সাহেবের মা সকলের সামনে রাইমার আসল চেহারার কথা সাহেবের বাবাকে জানতে শুরু করেন। তিনি বলেন দুর্ঘটনার পর সাহেবকে অপমান করে একটা অন্ধকার ঘরে আটকে থাকতে বাধ্য করেছিলো রাইমা আর সাথে দিনের পর দিন ছোট করেও এসেছে। অন্যদিকে চিঠি সাহেবকে সবার সামনে আসার সাহস দিয়েছে। আর এমন মেয়েই যে সাহেবের জীবনে দরকার। অবশেষে রাইমা কিছু করতে পারবে না জেনে চিঠির চরিত্র তুলে কথা বললে সকলের সামনে রাইমাকে কষিয়ে থাপ্পড় মারে চিঠি।

Related Articles