×
বিনোদন

ছদ্মবেশে মনিকা সুর, পিহু ও ঋষি কি পারবে তার আসল রূপ সকলের সামনে ফাঁস করতে?

বিজ্ঞাপন

কথাতেই আছে ধর্মের কাছে অধর্ম মাথা নোয়াতে বাধ্য। হয়তো সময় লাগে একটু তবে সত্যের পথে থাকলে অপরাধী তার অপরাধের শাস্তি পাবেই। তবে যদি অধর্মি যদি ভেদ ধরে ধর্মের পথকে নিজেকে গোপন করতে, তবে কী ধরা পড়ে না নাকি পাপী যাই বেশে থাকুক দোষীর শাস্তি হয়েই থাকে? না কোন ধর্মের বুলি নয়, কথা হচ্ছে মনিকা সুরের অপরাধের শেষ হওয়ার কথা। পিহু কি পারবে নিজের বাবা মায়ের খুনিকে শাস্তি দিতে?

বিজ্ঞাপন

মনিকাকে ধরতে গিয়ে দেখে গিয়েছে গাড়িতে মনিকা নেই, গাড়িতে আছে ঘোতনের আধ মরা দেহ। ওদের সামনেই প্রাণ হারালো সে। এই সব দেখে ঋষি সৌমেনকে প্রশ্ন করে এমন হলো কী করে? উত্তরে সৌমেন জানায় মনিকা নিজের ভাইয়ের এই ভাবে অন্যদের পক্ষে হয়ে যাওয়া মেনে নিতে পারছে না, আর সে এবারে রুশার ক্ষতি করতে চাইবে। সবটা শুনে শহর ছেড়ে পালিয়ে যাবে বলে ঋষি। তবে পিহুর প্ল্যান মনিকাকে তার নিজের চালেই ধরে ফেলা।

পিহুর বিশ্বাস মনিকা আরো হিংস্র হয়ে উঠেছে। আর সৌমেনের কথা মত যদি সত্যি মনিকা বদলা নিতে উঠে পড়ে লেগে থাকে তবে সে কোন না কোন ভাবে রুশার ক্ষতি করতে চেষ্টা করবেই তখনই পুলিশ ধরে ফেলবে তাকে। তবে ঋষির মনে হচ্ছে এই সব না করে শহরের বাইরে রুশাকে নিয়ে চলে যাওয়াই ভালো। এর মধ্যে দেখা যায় তারা সেই পুরোনো দুর্গা মন্দিরে গেছে পুজো করতে।

রুশা এবং সেন বাড়ির ক্ষতি করতে মাতাজির ছদ্মবেশ নিয়েছে মনিকা সুর। গাছের তলায় বসে রয়েছে আর আগত দর্শনাত্রিরা তার জয় গান করছে। অন্যদিকে পিহু – ঋষি অপেক্ষা করছে মনিকার ধরা পড়ার। এর মাঝে নিজেকে স্বামী রূপে পুরোহিতের কাছে জানান দেয় সৌমেন। এই শুনে রুশার ভালো লাগে না সে চলে আসে আলাদা জায়গায়।

Related Articles