×
বিনোদন

শেষমেশ রূপঙ্কর বিতর্কে মুখ খুললেন বাঙালি তারকারা, রইল বিস্তারিত

বিজ্ঞাপন

মাত্র ৫৩ বছর বয়সে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন বিখ্যাত গায়ক কৃষ্ণকুমার কুন্নাথ (Krishnakumar Kunnath) অর্থাৎ কেকে (KK) । তাঁর এই অকাল প্রয়াণ কিছুতেই মেনে নিতে পারছেন না সাধারণ মানুষ। সেই সঙ্গে সংগীত মহলও একেবারে শোকস্তব্ধ হয়ে পড়েছে। বলা হয় যাদের জীবনে গান রয়েছে তাদের জীবনের সবটুকু জুড়েই থাকে গান। আর এই কথা একেবারে প্রযোজ্য কেকের ক্ষেত্র। জীবনের শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করা পর্যন্ত গান গেয়ে গিয়েছেন তিনি। কিন্তু এই বিখ্যাত সংগীতশিল্পীর বিরুদ্ধে কিছুদিন আগেই আঙুল তুলেছিলেন আরেক বিখ্যাত গায়ক রূপঙ্কর বাগচী (Rupankar Bagchi)। কিন্তু আজ যখন তিনি পৃথিবীতে নেই তখন, সাংবাদিক সম্মেলনে কেকে এর প্রতি ক্ষমা চাইলেন রুপঙ্কর। এবারে এই নিয়ে মুখ খুললেন রাজ চক্রবর্তী (Raj Chakraborty), জিৎ গঙ্গোপাধ্যায় (Jeet Ganguly) এবং পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় (Parambrata Chatterjee)।

বিজ্ঞাপন

নজরুল মঞ্চে বিবেকানন্দ কলেজের জন্য কেকে-এর অনুষ্ঠানের ভিডিও ফেসবুকে দেখতেই প্রশ্ন তুলেছিলেন রূপঙ্কর বাগচী। তিনি ফেসবুক লাইভের মাধ্যমে বলেছিলেন ‘হু ইজ কেকে ম্যান।’ তারপর থেকেই নেট দুনিয়ায় শুরু হয়েছিল মহাশোরগোল! একের পর এক বিতর্কের সঙ্গে কটাক্ষের শিকার হয়েছেন রূপঙ্কর। এমনকি কেকে-রুপঙ্কর বিতর্কে দুই ভাগ হয়েছে নেটদুনিয়া।

কিন্তু, এবারে নিজেই আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করেন রূপঙ্কর। তিনি জানিয়েছেন, কেকের প্রতি আমার কোনো রাগ নেই। এমনকি তার পরিবারের সাথেও আমার কোন পরিচয় নেই। কেকে আজ যেখানেই থাকুক ঈশ্বর আপনার আত্মার শান্তি করুক। এরপরেও ট্রোলের শিকার হতে হচ্ছে রূপঙ্কর বাগচীকে।

এদিন রাজ চক্রবর্তী (Raj Chakraborty) জানান, সোশ্যাল মিডিয়া খুব ভেবেচিন্তে মুখ খুলতে হয়। যে অনুভূতি অপরকে দুঃখ দিতে পারে, তাই সেরকম অনুভুতি প্রকাশ করা উচিত নয়। তবে কেউ খারাপ বলছে বলে, তাকেও খারাপ বলতে হবে এমনটা কখনোই সমর্থন করেন না তিনি। অন্যদিকে, পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় (Parambrata Chatterjee) জানিয়েছেন, আমি রুপঙ্কর দার গানের ভক্ত। আমি আপনাকে সম্মান করি। উনি হয়তো বলতে চেয়েছেন বোম্বে আর্টিস্ট নিয়ে এতো মাতামাতি করছে কিন্তু বাঙালি শিল্পীদের নিয়ে এমনটা হয় না। আবার জিৎ গঙ্গোপাধ্যায় (Jeet Ganguly) জানিয়েছেন, কে কে আমার ২০/২৫ বছরের বন্ধু। প্রতিটা শিল্পপ্রতিষ্ঠান পাওয়ার জন্য অক্লান্ত পরিশ্রম করতে হয়। তাই শিল্পীদের একটু বুঝে শুনে কথা বলা উচিত।

Related Articles