×
বিনোদন

স্ত্রী ডোনার সাথে রাজস্থান ঘুরতে গিয়ে ২ রাত ঘুমাননি সৌরভ! প্রকাশ্যে এল গোপন তথ্য

বিজ্ঞাপন

মহারাজ সৌরভ গাঙ্গুলির (Sourav Ganguly) অসাধারণ প্রেজেন্টেশনে দাদাগিরির প্রতি সিজনই একেবারে সুপার ডুপার হিট হয়ে যায়। এই কথা মোটামুটি সবাই জানেন। প্রতি সপ্তাহেই এই গেম শোয়ের মঞ্চে থাকে নানা চমক। বিশেষ করে সেলিব্রিটিদের প্রতিযোগী রূপে আসার কারণে এই শো আরো আলোকিত হয়ে যায়। সম্প্রতি, ‛দাদাগিরি’ র একটি পুরোনো ভিডিও ক্লিপ বেশ ভাইরাল (Viral) হচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। যেখানে দাদা জানালেন, তাঁর জীবনের একটি ভয়ংকর অভিজ্ঞতার কথা।

বিজ্ঞাপন

ভূত কে না ভয় পায়, যে মনে মনে বিশ্বাস করে না ভূতকে সেও কিন্তু ভূত দেখলে ভয়ে অজ্ঞান হয়ে যাবে। হ্যাঁ, দাদারও ঠিক একই কান্ডই হয়েছিল। তিনি বিয়ের পর স্ত্রী ডোনাকে নিয়ে একবার রাজস্থান ঘুরতে গিয়েছিলেন। না হানিমুন নয়। তিনি সেখানে গিয়েছিলেন একটি বিজ্ঞাপনে শ্যুট করার জন্য।

আর সেখানে গিয়েই দাদার ঘুম এক্কেবারে বন্ধ হয়ে যায়, তিনি নাকি দু রাত ঘুমানো তো দূর চোখের পাতা ফেলতে পারেননি, ভয়ে। দাদা জানান যে, রাজস্থানের যোধপুরের একটি হোটেলে তাঁদের থাকার ব্যবস্থা করা হয়েছিল। যেতো নাকি আগে কেল্লা ছিল। আর হোটেলের রুমে ঢোকা মাত্রই দাদা এবং ডোনা বুঝতে পেরে গিয়েছিলেন যে, এখানে কিছু একটা রয়েছে।

আর সেই যে তাঁদের ভয় শুরু হয়েছিল, তাতে এক্কেবারে শিটিয়ে গিয়েছিলেন তাঁরা। প্রথম রাতে নাকি দাদা এবং ডোনা বৌদি টিভি দেখে কাটিয়েছিলেন। শ্যুটিংয়ের কারণে সৌরভ (Sourav Ganguly) ভোর ৪ টে নাগাদ বেরিয়ে যেতেন। সেই কারণে ডোনাও (Dona Ganguly) সেই সময় উঠে দাদার সবকিছু এগিয়ে দিতেন, কিন্তু যতক্ষণ না ভোরের আলো ফুটত ততক্ষণ ডোনা ঘুমাতে পারতেন না।

তবে এই ভিডিও ক্লিপে অভিনেতা সোহমকেও (Soham Chakraborty) তাঁর জীবনের একটি ভয়ংকর অভিজ্ঞতার কথা শেয়ার করতে দেখা গেল। তিনি জানালেন, একবার নাকি পুরুলিয়ায় শ্যুটিংয়ে গিয়েছিলেন অভিনেতা। আর সেখানে গিয়ে অযোধ্যা পাহাড়ের একটি বাংলোতে উঠেছিলেন অভিনেতা। সেখানেও সে অশরীরি কারোর উপস্থিতি অনুভব করেছিলেন। এমনকী একজন নাকি বাথরুম থেকে কাউকে বের হতে দেখেছিলেন।

Related Articles