×
বিনোদন

অবশেষে সিংহরায় বাড়ির তিন জুটি পাড়ি দিল হানিমুনে, কেমন হবে তাদের এই নতুন যাত্রা?

বিজ্ঞাপন

অবশেষে সব বাঁধা পেরিয়ে সিংহরায় বাড়ির তিন জোড়া হানিমুন হতে চলেছে। মান – অভিমান, যেতে না দেওয়ার চক্রান্ত সব দূরে ছুঁড়ে দিয়ে তিন জুটি ব্যাগ গুছিয়ে রেডি তাদের গন্তব্যে পৌঁছাতে। এক এক জনের এক এক স্বপ্ন পূরণ হওয়ার পথে পাড়ি দিয়েছে তিন জুটি। তবে কেমন হবে তিন জোড়া হানিমুন একসাথে? জানতে হলে চোখ রাখতে হবে স্টার জলসার পর্দায়। আর এই মুহূর্তে দেখে ফেলুন শেয়ার হওয়া প্রোমো ভিডিও।

বিজ্ঞাপন

দাদু আর ঠাম্মির নাতি আর নাতবৌদের হানিমুনে পাঠানোর সিদ্ধান্ত শুনে যে যার মতো করে আপত্তি জানিয়ে ছিলো। তবে দ্যুতি প্রথম থেকেই দাদু আর ঠাম্মির প্রস্তাবে রাজি। অন্যদিকে ঋদ্ধির মা আর ছোট পিসি বিয়ের এত দিন পর খড়ি – ঋদ্ধি হানিমুনে যাবে শুনেই খুশি, তারা চায় সমুদ্রে গিয়ে খড়ি – ঋদ্ধির মাঝের সমস্ত দূরত্ব যাতে মিটে যায়। তবে খড়ি – ঋদ্ধি যে একসাথে যেতে চাই ছিলো না।

আমরা দেখতে পেয়েছি খড়ি নিজের কাজের কথা জানালে সকলে তাকে বোঝায়। অবশেষে খড়ি রাজি হলেও কুণালের মা প্ল্যান করতে থাকে কী ভাবে তার ছেলে আর বনির হানিমুন ভেস্তে দেওয়ার যায়। অবশেষে অসুস্থ্য হয়ে পড়ার নাটক করে, সবাই চিন্তা করতে থাকলেও বনি নিজের শাশুড়ি মার চালাকি ধরে ফেলে। সেই জন্যে নার্স সেজে শাশুড়ি মার সেবা করতে আসে আর জানায় মন্দিরা অর্থাৎ কুণালের মায়ের একটা মারাত্মক অসুখ করেছে। যেটা শুনে বাড়ির সকলে বেশ ভয় পেয়ে যায়।

তারপরে এলো এই প্রোমো ভিডিওটি যেখানে দেখতে পাওয়া যাচ্ছে সকলে নিজের ব্যাগ হানিমুনের জন্যে পাড়ি দিচ্ছে। তার আগে বাড়ির সকল বড়োদের আশির্বাদ নিচ্ছেন। বাড়ির বড়োরা খড়ির হাতে ঘুরতে গিয়ে যাতে সকলে ভালো থাকে সেই দায়িত্ব দেয়। এই কথা শুনে ঋদ্ধি খড়ির কাছে এসে বলে, সকলকে ভালো রাখার দায়িত্ব আপনার আর আপনাকে ভালো রাখার দায়িত্ব আমার।

Related Articles