×
বিনোদন

সহচরীকে ফিরে পাওয়ার যুদ্ধে নামল সমরেশ, সে কি পারবে নতুন করে স্ত্রীর মন জয় করতে?

বিজ্ঞাপন

এই মুহুর্তের প্রথমসারির ধারাবাহিক গুলির মধ্যে অতি জনপ্রিয় ‘আয় তবে সহচরী’ (Aay Tobe Sohochori)। আর এই ধারাবাহিকে এখন চলছে টানটান উত্তেজনা পর্ব! দীর্ঘদিন অপমানিত হওয়ার পর শেষমেষ যে স্বামী সমরেশকে ডিভোর্স দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলে ছিলেন সই। কিন্ত এই আধুনিক সমাজে সহচারীর মতো একজন ছাপোষা সাধারণ গৃহবধু কি আর কোন দিন খুঁজে পাবে সমরেশ? তাইতো রতনে রতন চিনে শেষমেষ সই এর কাছে আর একবার সব কিছু ফিরিয়ে পাওয়ার অনুরোধ করছেন সমরেশ।

বিজ্ঞাপন

এতদিন স্বামীর পরকীয়া ও সংসারের যাতাকলের গন্ডি থেকে বাইরে বেরিয়ে নিজের পরিচয়ে বাঁচতে চেয়েছিল সই। আর সেটি হয়েওছে। রেডিও সেন্টারে কাজ করে নিজের পরিচয় গড়ে তুলেছে সে। তাঁর নারীবাদ ও গুণে মুগ্ধ হয়েছেন দর্শকেরা। তবে, মাঝে কিছুটা পরকীয়ার কারণে শোরগোল হলেও প্রথম দিন থেকেই ধারাবাহিকের গল্প বেজায় পছন্দ করেছেন নেটিজেনরা।

সম্প্রতি, ধারাবাহিকে একটি নতুন প্রোমো প্রকাশিত হয়েছে যেখানে দেখা যাচ্ছে, সই এর কাছে একগুচ্ছ লাল গোলাপ হাতে করে এসে আরো একবার একসঙ্গে নিজেদের জীবনের এগিয়ে যাওয়ার অনুরোধ করছেন সমরেশ। তিনি বলেন-‘ আমি আবারও নতুন করে সবকিছু শুরু করতে চাই সই।’ কিন্ত, সহচরী যে তাতে কিছুতেই রাজি নয়! দিনের পর দিন তাকে যেভাবে অপমানিত করা হয়েছিল এবং স্বামীর পরকিয়া করার বড় ভুল চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দেওয়ার পরেও এক্স গার্লফ্রেন্ড দেবীনা কে বিয়ে করতে তৎপর হয়ে উঠেছিলেন সমরেশ। তাই সই এখন খুব সাহসী ও প্রতিবাদী এক নারী। তাকে মানানো যে আর সহজ কাজ নয়।

তাইতো, তাঁর স্বামী এখন তাকে ফিরে পেতে চাইলেও সেই পথ খোলা রাখেননি তিনি। কারন সই বলেন-‘ আপনি আমায় হারিয়ে ফেলেছেন মিস্টার সেনগুপ্ত।’ আর সেখানে সমরেশ জানতে চাই তাকে পেতে গেলে এখন কি করতে হবে? সেই উত্তরে সহচারী বলে-‘ শুদ্ধ হয়ে আমাকে ইমপ্রেস করতে হবে। যেমনভাবে অচেনা পুরুষ মন জয় করার চেষ্টা করে।’ তবে, সই এবং শশুর মশাইকে যে এক করতে মরিয়া বরফি। তাহলেকি শেষমেষ তাদের পুনর্মিলন ঘটবে? নাকি আসবে আরো এক চমক!

Related Articles