×
বিনোদন

মনের মত জামাই হতে গিয়ে একদিনের মধ্যেই মোমো বানানো শিখে ফেললো ঋষি! রইল ভিডিও

বিজ্ঞাপন

স্টার জলসা হোক কিংবা জি বাংলা, সমস্ত ধারাবাহিক জুড়ে চলছে জামাইষষ্ঠী। এমন সময় ঘটলো বিরল ঘটনা। শাশুড়ি মা জামাইকে খাতির করে ভোজ খাওয়ানোর আগে জামাই নিজের বউয়ের দেওয়া প্রথম পরীক্ষায় করলো পাশ। নিজের হাতে মোমো বানিয়ে খাওয়ালো বউকে। তবুও কেনো খুশি নয় বউ। খুঁজছে পারফেক্ট মোমো বাবানোর আসল কারণ! জানতে হলে চোখ রাখতে হবে টিভির পর্দায়। তবে আপাতত এই প্রতিবেদনে চোখ রাখলেই হবে।

বিজ্ঞাপন

যখন কথা সেরা জামাইয়ের তখন ঋষি সেন পিছনে থাকবে কেনো? জামাইষষ্ঠীর তোড়জোড় চলছে সেন বাড়িতেও। দেখতে গেলে হওয়ার কথা ছিলো বৃষ্টি বাড়িতে তবে ঘটনা চক্রে পিহুর মাসি যখন কলকাতায় তখন ওই বাড়িতেই ঘটা করে আয়োজন করেছে প্রথম বছরের জামাইষষ্ঠীর অনুষ্ঠান। আর মাসির হাতে হাতে সাহায্য করছে রুশা। দুই জামাইকে খাতির করতে যখন ব্যস্ত মাসি আর রুশা, তখন ঘটে সেই ঘটনা।

মাসির মুখ থেকে জামাইদের নাম শুনে বেজায় চোটে গেলো পিহু। জানালো জামাই একটা আর সেটা হলো অনুষ্কার বর ঋত্বিক। অন্যজন এখনো পরীক্ষায় পাশ করেনি, আর পারবেও না করতে। এমন সময় নিজের দাদার নামে এমন কথা শুনে সৌমি বলে, না তার দাদা নাকি প্রথম চ্যালেঞ্জ করেছে পাশ। পেছনে সেফ ঋষির হাতে মোমোর থালা। তবুও কেনো খুশি নয় পিহু?

প্রোমোতে দেখানো হয়েছে পিহু আগেই দেখেছে ঋষি মোমো বানাতে গিয়ে সবটা ঘেঁটে ফেলেছিলো। তবে সামনে দেখতে পাচ্ছে প্লেট ভর্তি মোমো। তার স্বাদ আর দেখতে দুই একদম পারফেক্ট। নিজেই খেয়ে দেখার পর আরো আশ্চর্য পিহু। সে নিশ্চিত কেউ না কেউ সাহায্য করছে ঋষিকে। না হলে এক দিনে এমন সুন্দর মোমো বানানো সম্ভব নয়। যাই হোক দর্শক মহলে এখন খুশির আমেজ। কী হবে এর পরে?

Related Articles