×
বিনোদন

বিপদের মুখে খড়ি ও তার পরিবার, স্ত্রীর সন্মান বাঁচাতে রুখে দাঁড়ালো ঋদ্ধিমান, রইল ভিডিও

বিজ্ঞাপন

মাত্র কয়েক দিনের মধ্যেই দর্শকদের মনে পাকা জায়গা করে নিয়েছে এই জুটি। এককথায় তাদের কেমিস্ট্রি বেজয় উপভোগ করছেন দর্শকেরা। অনিচ্ছাসত্ত্বেও সাত পাকে বাঁধা পড়েছিল ‘গাঁটছড়া’ (Gantchhora) ধারাবাহিকের ঋদ্ধিমান ও খড়ি। তারপর থেকে, ভুল-বোঝাবুঝি ও দ্যুতি, রাহুলের একাধিক চক্রান্ত তাদের সম্পর্কে বার বার বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে। কিন্ত, দিন দিন খড়ির সৎ ও প্রতিবাদী চরিত্রে মুগ্ধ হয়ে ধীরে ধীরে ঋদ্ধিমান বাবুর মনে ভালোবাসা জেগে উঠেছে খড়ির প্রতি। তাই তো প্রকাশ্যে খড়িকে স্ত্রী হিসেবে মেনে নিয়েছেন ঋদ্ধি।

বিজ্ঞাপন

রাহুলের চক্রান্তে একের পর এক ঘটনা ঘটে চলেছে ঋদ্ধিমান বাবুর জিবনে। এবারে ঋদ্ধির ব্যাবসায় ঘটে বড়োসড়ো দুর্ঘটনা। বিশাল এক প্রোজেক্ট কমপ্লিট হওয়ার আগেই তৈরী সমস্ত জিনিসে আগুন ধরিয়ে দেয় রাহুল। এরপর প্রদর্শনীতে আগুন লেগে যাওয়ায় বাধ্য হয়ে স্ত্রীর কাছে ছুটে যায় ঋদ্ধি। সেখানে ঋদ্ধিমান বাবুর এমন অবস্থা দেখে কোন ভাবনা চিন্তা না করেই বরাবরের মতো স্বামীর পাশে দাঁড়ায় খড়ি। এক বিশাল ভেনিউ নিজের হাতে সম্পন্ন বাঙালি সাজে সুসজ্জিত করে তুলেছে খড়ি। ফের একবার সম্মান হানির হাত থেকে রিতিকে বাঁচিয়েছে তার স্ত্রী খড়ি।

কিন্তু, খড়ির পরিবারের যে বিপদ! দ্যুতির বিয়ের জন্য নিজের বাড়িকেই বন্দক দিয়ে বসে তাদের মা। এবারে, টাকা শোধ করতে না পারায় নোটিশ আসে তাদের বাড়ি উচ্ছেদের। আর হঠাৎ নিজের বাড়িতে হাজির হয়ে খড়ি দেখে এক গুন্ডা এসে ভাঙচুর করে দিয়েছে তাদের বাড়ির সমস্ত জিনিসপত্র এবং সে খড়িকে বলে, আপনাদের এক্ষুনি এই বাড়ি খালি করে দিতে হবে। তারপরেই যখন সেই গুন্ডা খড়ির বাবাকে ঘাড় ধাক্কা দিয়ে বাড়ি থেকে বের করে দিতে চায় সেখানে খড়ি প্রতিবাদী হয়ে উঠলে গুন্ডার এক ধাক্কায় পড়ে যায় সে। কিন্তু ভাগ্য বসত সেখানে ঋদ্ধিমান বাবু চলে আসায় তাঁর হাতে পরে খড়ি।

কিন্তু, নিজের স্ত্রীর অপমান একেবারে সহ্য করতে না পেরে গুন্ডার গালে জোড়ে থাপ্পড় বসিয়ে দেয় ঋদ্ধি। তারপরেই গুন্ডার জামার কলার চেপে ধরে ঋত্বিক বলে ওঠেন-‘ আমার স্ত্রীর গায়ে হাত তোলার সাহস কি করে হয় আপনার।’ শেষমেষ খড়িকে মন থেকে স্ত্রী হিসেবে মেনে নিয়েছেন ঋদ্ধিমান। আর এই ঘটনায় তা স্পষ্ট-ই ফুটে উঠেছে।

Related Articles