×
বিনোদন

জ্বরের কবলে খড়ি, ঋদ্ধির যত্নে কি সেরে উঠবে সে?

বিজ্ঞাপন

জ্বরের কবলে খড়ি, ঋদ্ধির যত্নে কি সেরে উঠবে সে? বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘গাঁটছড়া’ (Gantchhora) ইতিমধ্যেই বাংলার টপার ধারাবাহিক হিসেবে স্বীকৃতির পেয়েছে, তার কারণ একমাত্র এই ধারাবাহিক প্রতি সপ্তাহেই টিআরপির শীর্ষে থাকে। তবে এর কারণ একমাত্র এই ধারাবাহিকের গল্প।আর কলাকুশলীদের অসাধারণ প্রেজেন্টেশন। বিশেষ করে খড়ি অর্থাৎ শোলাঙ্কি রায় (Solanki Roy) এবং ঋদ্ধিমান অর্থাৎ গৌরব চ্যাটার্জীর (Gourab Chatterjee) অসাধারণ অভিনয়।

বিজ্ঞাপন

সবটাই এই ধারাবাহিকের মূল ইউএসপি। তার উপর তো আছেই দ্যুতি-রাহুলের কোণঠাসা ঝামেলা। সবটা নিয়েই এই ধারাবাহিক এক্কেবারে তুমুল জনপ্রিয়তা পেয়েছে। ইতিমধ্যেই খড়ি মিথ্যে অপবাদ মাথায় নিয়ে সিংহ রায় বাড়ি ছেড়েছেন।আর দ্যুতি বড়লোক বাড়ির কাজের মাসিতে পরিণত হয়েছেন। এদিকে স্ত্রীকে সেক্ষেত্রে দেখতে পাচ্ছেন না ঋদ্ধি, তা কতদিন হয়ে গেল,খড়ির সঙ্গে মিষ্টি মিষ্টি ঝগড়া না করলে যেন তাঁর ভাত হজম হয় না।

তাই একপ্রকার জেদ করেই খড়িকে আনতে চলে গেছেন ঋদ্ধিমান তাঁর শ্বশুরবাড়িতে। কিন্তু খড়ি যে কিছুতেই ফিরবে না সিংহ রায় বাড়িতে। এদিকে ঋদ্ধিমানও নাছোড়বান্দা, সে খড়িকে না নিয়ে কিছুতেই ফিরবে না বাড়িতে। খড়ির কাছাকাছি না থাকলে তাঁদের ভাব বাড়বে কী করে শুনি! এদিকে দুজনের মধ্যে যেন দুরত্ব অনেকটাই কমে গিয়েছেন, খড়িও ঋদ্ধিকে এখন চোখে হারায়। তার মধ্যে খড়ির পাড়ায় রবীন্দ্র জয়ন্তীতে চিত্রাঙ্গদাতে অর্জুন সেজে ঋদ্ধি দারুণ পারফরম্যান্স করে সবাইকে হতবাক করে দিয়েছেন। খড়িও যেন তাঁর স্বামীর এহেন গুনে মুগ্ধ।

তবে এদিন প্রোমোতে দেখা গেল, খড়ির মারাত্মক জ্বর হয়েছে। কিছুতেই সারছে না। ডাক্তার বলেছে খড়ির জ্বরের ইনফেকশন হয়ে গিয়েছে। সহজে কমবে না। তাই এবার ঋদ্ধিমান, খড়িকে সুস্থ করার দায়িত্ব নিলেন। তাঁকে বিছানা থেকে উঠিয়ে চেয়ারে বসিয়ে মাথায় ঠান্ডা জল দিয়ে দিলেন। এদিকে জ্বর অবস্থাতেও খড়ি বলতে শুরু করলেন, খবরদার আমাকে ধরবেন না। আর ঋদ্ধিও বলে, আপনাকে না ধরলে আমি আপনাকে সারাবো কী করে! এবার বোধহয় খড়ি-ঋদ্ধির মধ্যে যতোটুকু দূরত্ব ছিল সবটাই মিটে যাবে! সেটাই দেখার অপেক্ষা করছে দর্শকরা।

Related Articles