×
বিনোদন

ঋদ্ধি কি খড়ির মান ভাঙাতে অংশগ্রহণ করবে রবীন্দ্রজয়ন্তী অনুষ্ঠানে? রইল প্রোমো

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

অবশেষে খড়ি-ঋদ্ধির মধ্যে কমছে অভিমান, বাড়ছে ভালোবাসা। খড়িদের পাড়ায় রবীন্দ্র জয়ন্তীতে ঋদ্ধিমানকে অংশগ্রহন করার আবেদন জানালেন খড়ি। এবার কি করবেন তিনি? এখন স্টার জলসার টপার ধারাবাহিক ‘গাঁটছড়া’ (Gantchhora) নিয়ে দর্শকদের উত্তেজনার শেষ নেই। গত দু সপ্তাহে টিআরপির নিরিখে গাঁটছড়া দ্বিতীয় পজিশনে থাকলেও চলতি সপ্তাহেই নিজের আসন ফিরে পেয়েছে তাঁরা।

স্টার জলসার এই ধারাবাহিকে যেন রোমান্স-হাসি-নেগেটিভিটি সবটাই বর্তমান। তাইতো দর্শকদের কাছে এতটা আকর্ষণীয় হয়ে উঠেছে এই ধারাবাহিক। সংসার ছেড়ে অর্থাৎ সিংহ রায় বাড়ি ছেড়ে অনেক আগেই চলে এসেছেন খড়ি। তিনি গরিব হতে পারেন, কিন্তু আত্মসম্মান তাঁর মধ্যে ভরপুর। দ্যুতি-রাহুলের কোণঠাসা ঝামেলা চলছেই, মিথ্যে প্রেগন্যান্সির নাটক করে দ্যুতি সিংহরায় বাড়িতে ঢুকলেও, এখন তাঁর সব মিথ্যে জানতে পেরে দ্যুতি কাজের লোকে পরিনত হয়েছেন সিংহরায় বাড়ির।

ওদিকে খড়ি বাপের বাড়ি ফিরে গিয়েও শান্তি পায়না, রাহুলের ছোবল তাঁর জীবনে আঘাত করেই যাচ্ছে। ইতিমধ্যেই ঋদ্ধিরও স্বপ্নের এক্সিভিশন ভেঙে গুড়িয়ে দেয় রাহুল, আর স্বামীর এই বিপদে ঝাঁপিয়ে পড়েন খড়ি। ঋদ্ধিমান একাধিকবার খড়িকে মানিয়ে নিয়ে যেতে চাইলেও খড়ি ফিরবে না আর বলেই দিয়েছেন। এদিকে ঋদ্ধিমানও এখন খড়িদের বাড়িতে উঠেছেন, তাঁর দৃঢ় প্রতিজ্ঞা স্ত্রীকে না নিয়ে তিনি ফিরবেন না। এমন সময়ে রাতে খেতে বসেছেন, ঋদ্ধিমান।

তাঁকে খাবার পরিবেশন করছেন খড়ি। তখন ঋদ্ধিমান, খড়িকে খেতে বসে বললে, তিনি বলেন খড়ি সবাইকে খাবার দিয়ে শেষে খায়। এই শুনে ঋদ্ধিও বলে ওঠে তিনিও এবার থেকে শেষে খড়ির সঙ্গেই খাবেন। এমতাবস্থায় খড়িদের পাড়ায় অনুষ্ঠিত হয় রবীন্দ্র জয়ন্তী, কিছুদিন আগেই গিয়েছে রবীন্দ্র জন্মজয়ন্তী। তাই এই অনুষ্ঠানের আঁচ পড়ছে প্রতিটি ধারাবাহিকেও। খড়ি তাঁর পাড়ায় নাচবে, এবং সঙ্গে বলেন এখন থেকে এই পাড়ায় থাকতে হলে ঋদ্ধিমানকেও এই পাড়ায় যা যা হবে সবেতে অংশগ্রহণ করতে হবে। নয়তো তাঁকে সিংহরায় বাড়িতেই ফিরে যেতে হবে। এবার কি হবে খড়ির কথা মেনে কি ঋদ্ধিমান রবীন্দ্র জয়ন্তীতে অংশগ্রহণ করবেন নাকি ফিরে যাবেন সিংহরায় বাড়িতে! সেটাই দেখার!

Advertisement

Related Articles