×
বিনোদন

রবীন্দ্র জয়ন্তী অনুষ্ঠানে মিঠাইয়ের নাচে জমে উঠল মোদক বাড়ি, রইল ভিডিও

বিজ্ঞাপন

বিশ্বের দরবারে বাংলা সাহিত্যকে যে সকল কবি সাহিত্যিক মর্যাদার আসনে প্রতিষ্ঠিত করেছেন তাঁদের মধ্যে অন্যতম, বলতে গেলে শ্রেষ্ঠ হলেন কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর। বরাবরের মতো এবছরও রবীন্দ্র জয়ন্তী দিনটি খুব ধুমধাম করে উদযাপন করা হলো স্কুল, কলেজ থেকে শুরু করে নানান জায়গায়, বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে চলে সেই অনুষ্ঠান। এমনকি বাদ পড়েনি টেলিভিশন জগতও। ছোট পর্দার বিভিন্ন সিরিয়ালে দেখা গেল রবীন্দ্রজয়ন্তী উদযাপন করে কবিকে শ্রদ্ধা নিবেদন করতে। এই রকমই সুন্দরভাবে কবিগুরুকে স্মরণ করতে দেখা গেল জি বাংলার অন্যতম জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘মিঠাই’ (Mithai) তে।বাঙালিদের কাছে দিনটি যে বড়ো গর্বের।

বিজ্ঞাপন

খুব সুন্দর ভাবে সেই অনুষ্ঠান তুলে ধরা হলো দর্শকদের সামনে।আর বরাবরের মতোই মূল আকর্ষণ ছিল মিঠাই এর নৃত্য পরিবেশনা। এবারও তার ব্যতিক্রম ঘটেনি। অসাধারণ এক নৃত্য পরিবেশন করে সকলের মন জয় করে নিয়েছেন তিনি। সাদা রঙের শাড়ি, মাথার খোঁপার সাদা ফুলের সাজে তাঁকে দেখতে যেমন সুন্দরী লাগছিল ঠিক সেরকমই তাঁর নৃত্য মুগ্ধ করে দেয় সকলকে।

তবে মিঠাই সিরিয়াল নতুন এক মোড় এসেছে সেখানে সিদ্ধার্থের দেখা মিলছে নতুন এক চরিত্র রিকি দ্যা রকস্টার রূপে।আর এই রিকির গার্লফ্রেন্ড হচ্ছে প্রিয়াজ্ঞলি। এই প্রিয়াজ্ঞলি, মিঠাইয়ের কাছ থেকে সিদ্ধার্থকে ছিনিয়ে নেওয়ার জন্য নানান কৌশল চালিয়ে যাচ্ছে সেখানে তাঁকে সাহায্য করে চলেছে তোর্সা। এবার রবীন্দ্রজয়ন্তী উৎসবেও দেখা গেল মিঠাই এর ক্ষতি করার চেষ্টা করতে।

মিঠাই যখন সকলের সামনে নৃত্য পরিবেশনে ব্যাস্ত হঠাৎ মাঝপথে সেই নাচের তালে তাল মিলিয়ে নাচতে শুরু করে প্রিয়াজ্ঞলি, মাঝেমধ্যেই মিঠাইকে কনুই এর ধাক্কা, হাত দিয়ে ঠেলে ফেলে দেওয়ার চেষ্টা করতে থাকে। তবে মিঠাইকে কি এতো সহজে প্যাচে ফেলা যায়! সে ঠিক বুঝতে পারে রক স্টারের গালফ্রেন্ডের ওই বদমায়েশি। শেষে যখন মিঠাইকে ফেলে দেওয়ার জন্য জোরে ধাক্কা দেয় সে তখন মিঠাই সরে যাওয়ায় নিজেই পড়ে যায় প্রিয়াজ্ঞলি। সাথে সাথে বাড়ির বড়োরা সাহায্যের জন্য এগিয়ে আসে, মিঠাইও এগিয়ে আসে এবং সকলের সামনে বলে দেয় যে তাঁকে এইরকম করার জন্য বলেছিল বড়ো জা অর্থাৎ তোর্সা।

Related Articles