×
বিনোদন

আমি শুধু ফুলঝুড়িকেই ভালোবাসি, ফুলসজ্জার রাতে লালনের স্পষ্ট জবাব শুনে অবাক চড়ুই, রইল ভিডিও

বিজ্ঞাপন

স্টার জলসার অন্যতম জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘ধুলোকণা’ (Dhulokona)। যে ধারাবাহিক বিগত সপ্তাহ টিআরপির সিংহাসন এক্কেবারে আগলে রেখেছিলেন। কিন্তু লালন-ফুলঝড়ির বিয়ের টুইস্ট মিটতেই ফের আগের পজিশনে ফিরে যায় ধুলোকণা। ধারাবাহিকে কিছুদিন আগেই দেখানো হয়েছে, লালন-ফুলঝড়ির বিয়ে হতে হতেও শেষ পর্যন্ত হলনা।

বিজ্ঞাপন

লালনের বাবার পরামর্শে ফুলঝড়ি শেষমেশ বেঁকে দাঁড়ায়, তখনই ফুলঝড়ির জায়গায় লালনের পাশে ঘোমটা দিয়ে বসে পড়েন চড়ুই, আর লালন ফুলঝড়িকে না দেখেই বিয়ে করে নেয়। বিয়ের পরে চড়ুইকে দেখে আঁতকে ওঠে সবাই আর ফুলঝড়ির থেকে এর কারণ জানার পর স্বাভাবিকভাবেই ভুল বোঝে লালন ফুলঝড়িকে। শেষ পর্যন্ত কাহিনীতে দারুন পরিবর্তন আনতে সক্ষম হয়েছেন চিত্রনাট্যকার লীনা গঙ্গোপাধ্যায়।

চড়ুইয়ের সঙ্গে লালনের বিয়ের পর থেকেই ধারাবাহিকের লালন-ফুলঝড়ির উপর বেজায় রেগে গিয়েছিলেন দর্শকদের একটি বড় অংশ। তবে এবার লালন-চড়ুইয়ের ফুলশয্যার রাতের পর্বে দেখা গেল কাহিনীতে। যেখানে লালন স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন, চড়ুই নয় ফুলঝুড়িকেই ভালোবাসে সে। আর এই কথা শুনে ফের হতবাক হয়ে গিয়েছেন দর্শকরা। এদিকে ফুলশয্যার রাতেই চড়ুইকে লালন ফুলঝুরির বিষয়ে সব জানিয়ে দেওয়ার পর লালন বলেন, ফুলঝুড়ির প্রতি অভিমান থেকেই সে চড়ুইয়ের সঙ্গে ভালোবাসার নাটক করছেন।

তবে এর উত্তরে চড়ুই জানিয়ে দিয়েছে সে আজ পর্যন্ত যা চেয়েছে তাই পেয়েছে। তাই এক্ষেত্রেও লালনের মন জয় করতে সক্ষম হবে চড়ুই। তবে দর্শকদের এখনো ধারণা যেহেতু লালন, ফুলঝড়িকেই ভালবাসেন, তাই তাঁদের আবার বিয়ে হতে পারে। যদিও সম্প্রতি প্রোমোতে উঠে এসেছে, ফুলঝড়ি বড় গায়িকা হয়ে গিয়েছেন আর লালন হয়েছেন ফুলঝড়ির ড্রাইভার। এখান থেকেও ফের ভালোবাসা জন্মাতে পারে বলে ধারণা এই ধারাবাহিকের অনুগামীদের।

Related Articles