×
বিনোদন

দীপাকে খুনি অপবাদ দিয়ে বাড়ি থেকে বের করে দেওয়ার হুমকি দিল লাবণ্য, রইল প্রোমো

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

চূড়ান্ত অপমান করে লাবণ্য দীপাকে বাড়ি থেকে বের করে দিতে চাইছেন, তিনি বলছেন, ঊর্মিকে নাকি দীপা খুন করতে চাইছে। আর রাগে দীপাও বলে তিনি বেরিয়ে যাবেন বাড়ি থেকে, কি ঘটেছে আসলে? স্টার জলসার একেকটি ধারাবাহিকে চলছে ধুন্ধুমার পর্ব। টিআরপির সিংহাসন কে দখল করবে তার জন্যে একেকটা ধারাবাহিকে চলছে টানটান সব পর্ব। টুইস্টে মোড়া সব ধারাবাহিক দেখতে দর্শকদের মধ্যেও উত্তেজনার শেষ নেই। স্টার জলসার অন্যতম জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘অনুরাগের ছোঁয়া’ (Anurager Chhowa)। এই ধারাবাহিকে শুরু থেকেই চলছে টানটান পর্ব।

এক কালো মেয়ের জীবনী নিয়েই গড়ে তোলা হয়েছে এই ধারাবাহিক। যার প্রেমে পড়ে একজন বড়লোক বাড়ির ছেলে সূর্য।যার ভাইয়ের সঙ্গে কিনা নায়িকার বোনের বিয়ে ঠিক হয়েছে। তবে মাঝে এই ধারাবাহিক নিয়ে উঠছিল গুজব, নাকি এই ধারাবাহিক খুব শীঘ্রই শেষ হয়ে যাচ্ছে। তবে না এই ধারাবাহিকের পরিচালক থেকে কলাকুশলীরা সবাই এটিকে মিথ্যে রটনাই বলেছেন। যাই হোক এবার ফিরি আলোচ্য বিষয়ে। এই ধারাবাহিকের মূল চরিত্রে যারা আছেন, অর্থাৎ সূর্য-দীপা। কয়েকদিন আগেই বিয়ে করেছেন। কালো বলে দীপাকে তাঁর সৎ মা এক্কেবারেই পছন্দ করতেন না। এমনকী সূর্যকে দীপার বোন নানা প্রস্তাব দিয়েছিলেন তাঁকে বিয়ে করার জন্যে, কারণ সূর্য তাঁর ভাইয়ের সম্বন্ধের জন্যেই ঊর্মিকে দেখতে গিয়েছিলেন।

কিন্তু ঊর্মি সূর্য দেখে এক্কেবারে ক্রাশ খায়। সে সূর্য কেই বিয়ে করতে চেয়েছিল। কিন্তু সূর্যের বরাবরই পছন্দ ছিল ঊর্মির সৎ দিদি দীপা কেই। এমনকী সূর্য দীপাকে বিয়েও করে নেয়। কিন্তু সূর্যর মা লাবণ্য দীপাকে একেবারেই সহ্য করতে পারেনা। তাই ছেলের বৌ হিসেবে এখনো মেনে নেন নি তিনি দীপাকে। তবে দীপা তাঁর শ্বশুরবাড়িতেই রয়েছেন।এদিকে সূর্যর ভাই ঊর্মি কে বিয়ে করার জন্যে পাগল, সে আত্মহত্যা পর্যন্ত করতে গিয়েছিলেন। এই দেখে সূর্য-দীপা তাঁর মা লাবণ্যকে রাজি করায় যে, জয়ের সঙ্গে যেন ঊর্মির বিয়ে হয়। লাবণ্য রাজি হয় এবং জয়-ঊর্মির বিয়েটা হয়ে যায়। কিন্তু ঊর্মি বাড়িতে ঢোকার পর থেকেই একের পর এক বিপাকে ফেলছেন তিনি দীপাকে। এদিকে দীপাকে শাশুড়ির কাছে বকা খাওয়ানোরও সমস্ত ফাঁদ পেতে রাখছেন ঊর্মি।

এদিকে সূর্য-দীপার সংসারে এসেছে নতুন অতিথি। সূর্যর এক বিদেশি বন্ধু এসেছে, কিন্তু আদৌ এই বন্ধুর সঙ্গে সূর্যর কি সম্পর্ক ছিল তা জানা সম্ভব হয়নি এখনো। এদিকে দীপাকে ঊর্মি ফের ফাঁসানোর চেষ্টা করেন। এবার তিনি দীপাকে সবার সামনে তাঁর বোনের অর্থাৎ ঊর্মি নিজেকে দিয়েই বলেন যে, দীপা নাকি তাঁকে খুন করতে চাইছেন। এই কথা লাবণ্য জানার পরও এক্কেবারে তেলেবেগুনে জ্বলে ওঠে তিনি তো আগাগোড়াই দীপাকে সহ্য করতে পারেনা। এবার সাপে বর হল। এবার লাবণ্য বলেন, ‘তুমি সৎ বোনকে সহ্য করতে পারো না বলেই তাঁকে খুন করতে গিয়েছো তাই না, একটাও কথা বললে বাড়ি থেকে ঘাড় ধাক্কা দিয়ে বের করে দেবো।’ তখন দীপা বলেন, ‘আমি ছোটবেলা থেকে এত কষ্ট সহ্য করেছি, আমি আমার নিজের বোনকে কি করে খুব করব। ঠিক আছে আপ্নার যদি এতই মনে হয়, আমি বাড়ির থেকে বেরিয়ে যাব।’তখনই সূর্য এসে দীপাকে শান্ত হতে বলে এবং সূর্যর বন্ধু বলে দীপা তুমি খুব ভাল মানুষ তাইতো সবাই তোমাকে ফাঁসানোর চেষ্টা করছে।

Advertisement

Related Articles