×
বিনোদন

গয়না চুরির দায়ে গ্রেফতার খড়ি, স্ত্রীকে নির্দোষ প্রমাণ করার চ্যালেঞ্জ নিলো ঋদ্ধি, রইল ভিডিও

বিজ্ঞাপন

গয়না চুরির অভিযোগে গ্রেফতার খড়ি, ঋদ্ধি কী বাঁচাতে পারবে খড়িকে? এই মুহূর্তে বেঙ্গল টপার বাংলার একটাই ধারাবাহিক স্টার জলসার গাঁটছড়া (Gantchhora)। ইতিমধ্যেই সব ধারাবাহিককে বোল্ড-আউট করে সেরার সেরা তকমা অর্জন করে নিয়েছে এই ধারাবাহিক। সুতরাং বুঝতেই পারছেন এই ধারাবাহিকের ক্রেজ আজ কোথায় গিয়ে দাঁড়িয়েছে। কয়েক সপ্তাহ ধরে টিআরপির শীর্ষে সমানভাবে জায়গা করে রেখেছে এই ধারাবাহিক।

বিজ্ঞাপন

মাত্র কয়েক মাসেই নেটিজেনরা এক্কেবারে বুঁদ এই ধারাবাহিক দেখার জন্যে। হবে নাই বা কেন, খড়ি-ঋদ্ধির টানটান দাম্পত্য রসায়নে সিরিয়ালপ্রেমীরা একেবারে তটস্থ। যাই হোক, এবার আসি আলোচ্য বিষয়ে। ইতিমধ্যেই ধারাবাহিকে জমে উঠেছে খড়ি-ঋদ্ধির প্রেম। দুজনেই যেন চোখে হারাচ্ছে একে অপরকে। প্রেম শুরু হতে যাবে কিন্তু তার মধ্যেই অশান্তির শেষ নেই। কারণ স্ত্রীকে তো মানিয়ে বুঝিয়ে নিয়ে এসেছেই ঋদ্ধি। কিন্তু বাড়িতে এসেই খড়ির পেছনে লাগা শুরু করেছেন তাঁর পিসি শাশুড়ি এবং দ্যুতি। এদিকে ঋদ্ধির ভাই রাহুলও শয়তানি শুরু করেছে ভালমতই।

সেই কারণেই এবার রাহুলের তোপে জব্দ হলেন খড়ি। ঋদ্ধিমান তো সবকিছু থেকেই বউকে রক্ষা করে যাচ্ছেন। কিন্তু এবার আর রক্ষা পেল না খড়ি। একজন বিখ্যাত ব্যবসায়ী তাঁর মেয়ের বিয়ে উপলক্ষ্যে ঋদ্ধিমানদের শোরুম থেকে কয়েকশো ভরি সোনার গয়না কেনেন। এবং তা যাতে ঠিকঠাক থাকে তাই সিংহরায় বাড়িতেই সেই গয়না কিনে রেখে গিয়েছিলেন এবং তা রক্ষার দায়িত্ব পড়ে খড়ির উপর। খড়ি প্রথম এত বড় গুরু দায়িত্ব না রাখতে চাইলেও পরে রাজি হয় এবং ঠিকঠাক মতন রেখে দেয়।

কিন্তু পরের দিন সেই ব্যবসায়ী তাঁর গয়না নিতে এলে সেই গয়না গায়েব হয়ে যায়। খড়ি নিজেও জানতে পারেনা যে, এটা কি করে হল। আর গয়না চুরির অভিযোগ তোলেন ওই ব্যবসায়ী সিংহরায় বাড়ির উপর। আর এই অভিযোগের দায়ভার মাথায় নেয় খড়ি এবং তাঁকে পুলিশ গ্রেফতার করে। আর বাড়িতে এসে ঋদ্ধি তা জানতে পেরেই খড়িকে উদ্ধারের চেষ্টা শুরু করেন। কিন্তু তাঁর দাদু বলেন, যে কেস ওই ব্যবসায়ী দিয়েছে তা থেকে সহজে রেহাই পাওয়ার উপায় নেই। ওদিকে কারুর জানার বাকি নেই যে, রাহুলেরই কার্যসিদ্ধি!

Related Articles