×
বিনোদন

রসময়ের চক্রান্তে বিপদে পড়ল ঈশান, গৌরী কি পারবে স্বামীকে বাঁচাতে?

বিজ্ঞাপন

গৌরীকে আঘাত করার জন্যে ঈশানের দাদু ফাঁদ পেতে থাকে, আর সেই ফাঁদে পড়ে যান ঈশান। জি বাংলার অন্যতম জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘গৌরী এলো’ (Gouri Elo)। যে ধারাবাহিক শুরু থেকেই টিআরপির সেরা দশে নাম উঠিয়েছে। ওদিকে গৌরী-ঈশানের অভিনয়ও নজরকাড়া। গ্রামের মেয়ে গৌরী এবং শহরের উচ্চাভিলাসী ডাক্তার ঈশান। একটি দুর্ঘটনায় তাঁদের বিয়ে হয়, যদিও গৌরী যে গ্রামে থাকেন সেই গ্রামেরই জমিদারের ছেলে হলেন ঈশান।

বিজ্ঞাপন

আর সেই গ্রামের জাগ্রত দেবী কালীমা। যার পরম পূজারী ভক্ত গৌরী। মায়ের আশীর্বাদ সব সময়েই গৌরীর মাথায় বর্তমান। গৌরীকে গ্রামের গুণ্ডাদের হাত থেকে বাঁচাতেই ঈশান বিয়ে করে নেয়। শহরে শ্বশুরবাড়িতে গৌরী পৌঁছলেও কিছু কিছু মানুষ বাদে গৌরীকে সবাই আপন করে নেয়। কিন্তু ঈশানের পিসি এবং ঠাকুরদাদা কেউই এখনও মেনে নেয়নি। তাঁরা বিভিন্ন ভাবেই গৌরীকে তাঁদের ঈশানের থেকে সরিয়ে দিতে চাইছেন।

যদিও এরই মধ্যে ঠাকুর পূজারী শৈল মা অর্থাৎ ঈশানের পিসি গৌরীর মধ্যে যে মায়ের একটি শক্তি আছে সেটা বুঝে যায়। এদিকে ঈশান-গৌরীর ফের বিয়ের ব্যবস্থা করা হয়, ঈশানের বাড়ি থেকে। কিন্তু বিয়ের দিন ঈশান একটি কারণে বিয়ের মণ্ডপে পৌঁছতে দেরি করলে ফের গৌরীকে ভুল বোঝে তাঁর শাশুড়িমা। কিন্তু শেষমেষ ঈশান বাড়ির ফিরে এলে বিয়েটা হয়। কিন্তু বিয়ের দিনই একটা উচিত শিক্ষা দিতে উঠে পড়ে লাগে তাঁর দাদু। শৈল মা হঠাৎ করে গৌরীকে ডেকে পাঠায়।

আর শৈল মা গৌরীকে ডেকেছে শুনতে পেয়ে বাড়ির সবাই চমকে যান। গৌরীও উৎফুল্ল হয়ে সিঁড়ি দিয়ে ছুটতে ছুটে যায়, ওদিকে তাঁর পেছন পেছন ঈশানও আসে। কিন্তু এখানেই যে আছে টুইস্ট, গৌরীকে ফেলে দেওয়ার জন্যে ঈশানের দাদু পেতে রাখে ফাঁদ, সিঁড়িতে তিনি সুতো বেঁধে রাখেন যাতে গৌরী উল্টে পড়ে যান।আঘাত লাগে তাঁর, তাহলে তাঁর বিশ্বাস তাঁর মেয়ের আত্মবিশ্বাস ফিরে আসবে। এদিকে সেই ফাঁদে পড়ে যান ঈশান। সুতোয় পা আটকে চিটপটাং হয়ে পড়ে যান তিনি। একেই বলে হয়তো অন্যের জন্যে পাতা ফাঁদে নিজের মানুষরাই আহত হয়।

Related Articles