×
বিনোদন

পিংকিকে বাঁচাতে ছদ্মবেশে হাজির হল্লা পার্টি, রইল ভিডিও

বিজ্ঞাপন

জি বাংলার অতি জনপ্রিয় ধারাবাহিক গুলির মধ্যে অন্যতম ‘মিঠাই’ (Mithai), এই নিয়ে বলার মতো আর কিছু নেই! এই ধারাবাহিকে মিঠাই রানীর মতোই দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করে হল্লা পার্টি। পরিবারের কোন সদস্যের বিপদ ঘটলেই কোমর বেঁধে তাকে বাঁচাতে মাঠে নেমে পড়ে হল্লা পার্টির সকল সদস্য। এবারে, ধারাবাহিকে স্যান্ডি যে প্রেমে হাবুডুবু খাচ্ছে তারই ছাত্রী পিংকির প্রেমে। তবে শুধু স্যান্ডি একা নয়, প্রেমের আগুন জ্বলছে দুজনের মনেই। কিন্তু কোন ভালোবাসা কি আর এত সহজেই পরিণতি পায়? তাই তো এখন হল্লা পার্টির টার্গেট স্যান্ডির ভালোবাসার মানুষকে তার কাছে ফিরিয়ে দেওয়ার।

বিজ্ঞাপন

রবীন্দ্রজয়ন্তীর দিন মোদক পরিবারে প্রথম দেখা মেলে স্যান্ডির ভালোবাসার মানুষ পিংকিকে। তারপরেই হল্লাপার্টি বুঝতে পারে প্রেমের জোয়ারে হাবুডুবু খাচ্ছে দুজনেই। তাইতো তাদের এক করার জন্য স্যান্ডিকে রাজি করে পিংকিকে প্রপোজ করার জন্য। শেষমেষ স্যান্ডি রাজি হয় এবং পরিকল্পনা মাফিক একটি ক্যাফেতে রিকি দ্যা রকস্টারের দ্বারা রোম্যান্টিক পরিবেশ গড়ে তোলে সেখানেই পিংকিকে প্রপোজ করতে যাবে কিনা হাজির ওমি আগারওয়াল!

কিন্তু এখানে ওমি আগরওয়ালের ভূমিকা কি? আসলে হিন্দিভাষী পিংকি আর কেউ নন হলেন ওমি আগারওয়ালের একমাত্র বোন। স্যান্ডির জীবনে এই প্রথম ভালবাসা, সেটি কার সঙ্গে না মোদক পরিবারের চিরশত্রু আগারওয়াল পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে। তবে, এই দৃশ্য দেখার পর পরের দিনই নিজের বোনের বিয়ে ঠিক করে ফেলে ওমি। এমনকি শুরু হয়ে গিয়েছে পিংকির মেহেদী উৎসবও। এসবের মধ্যে হল্লা পার্টি প্রাণপণে শপথ নিয়েছে যেভাবেই হোক পিংকিকে বাঁচাতেই হবে।

তাইতো মেহেন্দি উৎসবের দিন ওমি আগরওয়ালের বাড়িতে ছদ্মবেশে পৌঁছে যায় হল্লা পার্টির গোটা টিম। বেশ অন্য ধরনের লুক অর্থাৎ শাড়ি পড়ে, ঘোমটা টেনে মুখ ঢেকে একেবারে হিন্দিভাষী হয়ে পিংকিকে মেহেন্দি পড়াতে হাজির মিঠাই, নিপা ও দিদিয়া। এখন দেখার বিষয় হল্লাপার্টি কি পারবে অন্য কারোর সাথে পিংকির বিয়ের আগে তাকে সেখানে থেকে পালিয়ে নিয়ে আসতে? স্যান্ডি-পিংকির ভালোবাসা কি আদেও পরিনতি পাবে? নাকি আসতে চলেছে ফের এক টুইস্ট!

Related Articles