×
বিনোদন

এবার সূর্যের কাছে পরীক্ষার দেওয়ার পালা দীপার, নিজেকে নির্দোষ প্রমাণ করার চ্যালেঞ্জ নিল সে

বিজ্ঞাপন

এই মুহূর্তে স্টার জলসার জনপ্রিয় ধারাবাহিক গুলির মধ্যে অন্যতম হয়ে উঠেছে ‘অনুরাগের ছোঁয়া’ (Anurager Chhowa) ধারাবাহিকটি। মাত্র কিছু মাস হল তাতেই টিআরপি তালিকায় নিজের নাম পাকাপোক্ত করে নিয়েছে এই ধারাবাহিকটি। কেননা, প্রথম থেকেই এই ধারাবাহিকের অন্যরকম গল্প দর্শকদের মনোযোগ আকৃষ্ট কর তুলেছে। রূপ নয় গুন-ই হল মানুষের আসল পরিচয়, যা হল ধারাবাহিকের মূল ট্যাগলাইন। সম্প্রতি, নেটদুনিয়ায় প্রকাশ্যে এসেছে এই ধারাবাহিকের নতুন প্রোমো। এবার সূর্যের কাছে পরীক্ষার দেওয়ার পালা দীপার, নিজেকে নির্দোষ প্রমাণ করার চ্যালেঞ্জ নিল সে।

বিজ্ঞাপন

নতুন প্রোমোটিতে দেখা যাচ্ছে, ধারাবাহিকে আসতে চলেছে মহাসপ্তাহে মহাপর্ব এপিসোড। যেখানে, ইন্টারন্যাশনাল ফ্লাওয়ারের কম্পিটেশনে নাম দেওয়ার জন্য ফোন আসে দীপার কাছে। এই ফোন আসতেই সে অত্যন্ত খুশি হয় এবং কম্পিটিশনে নিজের নামও দেয়। তারপরেই দীপা হাতজোড় করে ভগবানকে ধন্যবাদ জানায় যে ‘আমাকে বিশ্বাস করে প্রমাণ করে দেওয়ার সুযোগ করে দিলে ঠাকুর। কিন্তু ডাক্তারবাবু যে আমায় বিশ্বাস করেন না।’ এই সমস্ত ঘটনা আড়ালে থেকে সূর্য শুনে দীপাকে বলে-‘ নিজেকে নির্দোশ প্রমান করতে পারলে কেন বিশ্বাস করবোনা ?’ তার বিপরীতে দীপা বলে-‘ আপনার কাছে যে আমাকে কোন দিন নির্দোশ প্রমান করতে হবে তা কখনো ভাবিনি।’ এরমাঝেই দীপার শাশুড়িমা এসে বলেন ‘তুমি সারাজীবন ফুলওয়ালি হয়ে থাকবে দীপা। কিন্তু কখনো নিজেকে নির্দোষ প্রমান করতে পারবে না।’

আসলে, ডাক্তারবাবু সূর্যের মা চেয়েছিলেন তাঁর ছেলের সঙ্গে এক সুন্দরী ও ফর্সা মেয়ের বিয়ে দিতে। কিন্তু তাঁর ছেলের যে রূপ নয় গুণবতী মেয়ে দীপাকে পছন্দ, আর তাকেই বিয়ে করে বাড়ির বউ করে তোলে সূর্য। দীপার গায়ের রং কালো হওয়ার কারণে বড়াবড়ই অপমানিত হতে হয় তাকে এবং এই কারণেই শাশুড়ি মায়ের অপছন্দের তিনি। তাই দীপার বিরুদ্ধে একের পর ষড়যন্ত্র এটে যান শাশুড়ি মা।

তবে ধারাবাহিকে এই পর্বে ঠিক কেন দীপা নিজেকে সঠিক প্রমাণ করবে আর কেনই বা তাঁর স্বামী সূর্য দীপার ওপর রেগে আছেন তা এখনো স্পষ্ট ফুটিয়ে তোলা হয়নি। যার ফলে, এখন দর্শকেরা এর কারণ জানতে উদবিগ্ন হয়ে পরেছেন। আর আপনিও যদি এর কারন জানতে চান তাহলে অবশ্যই চোখ রাখতে হবে স্টার জলসার পর্দায়।

Related Articles