×
বিনোদন

KK বিতর্কে রূপঙ্করকে স্পষ্ট জবাব দিলেন ‘আয় তবে সহচরী’ ধারাবাহিক খ্যাত অভিনেত্রী কনীনিকা

বিজ্ঞাপন

‘বিনোদন জগতে কাগজে তৈরি সার্টিফিকেট দেখিয়ে কাজ পাওয়া যায় না। নিজেকে জীবনের শেষ মুহুর্ত পর্যন্ত প্রমাণ করতে হয়। কেকে(KK) ও রূপঙ্কর দুজনের জীবনেই রয়েছে লড়াই।’ হ্যাঁ ঠিক দেখছেন। তবে এই কথা গুলো আমরা নই বলেছেন অভিনেত্রী কণীনিকা ব্যানার্জী (Koneenica Banerjee) বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে চলছে রূপঙ্কর বাগচী এবং কেকে কে নিয়ে আলোচনা। সাধারণ মানুষ থেকে সেলিব্রেটি সকলেই নিজেদের মতামত জানিয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

কেকে চলে গিয়েছেন হঠাৎই। ফেলে রেখে গিয়েছেন না ভোলা অমূল্য কৃষ্টি, তারমধ্যে একটি ‘পাল’। কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁকে ও রূপঙ্কর বাগচী (Rupankar Bagchi)-কে নিয়ে চলছে তরজা। সেলিব্রিটি থেকে আম জনতা সকলেই নিন্দা করেছেন রূপঙ্কর বাগচীর। ঘটনাচক্রে কেকে-র মর্মান্তিক মৃত্যুর দিনই নজরুল মঞ্চে তাঁর অনুষ্ঠান চলাকালীন রূপঙ্কর একটি ফেসবুক লাইভ করে বলেন, “কেকে-কে নিয়ে এত মাতামাতির কিছুই নেই। তিনি, ইমন (Iman Chakraborty) বা অপর বাঙালি শিল্পীরা কেকে-র তুলনায় অনেক বেশি ভালো গান করেন। কেকে কে?” এরপর থেকেই ধূমায়িত হচ্ছিল অসন্তোষ যার পরিণতি দেখা যায় কেকে-র মৃত্যুসংবাদ দাবানলের মতো ছড়িয়ে পড়ার পর। রূপঙ্করের লাইভের নিন্দা করেন সবাই। ওঠে তাঁকে বয়কটের ডাক। এবার কণীনিকা ব্যানার্জী (Koneenica Banerjee) উত্তর দিলেন কেকে কে?

হঠাৎ করে ‘আয় তবে সহচরী’-র মেকআপ রুম থেকে ফেসবুক লাইভে আসেন কণীনিকা। তিনি তুলে ধরেন নস্টালজিক নব্বইয়ের দশকের কথা যখন মুম্বইয়ের বুকে রিলিজ করেছিল ‘পাল’, অপরদিকে বাংলার বুকে রাজত্ব নচিকেতা (Nachiketa), কবীর সুমন (Kabir Suman)-দের। কণীনিকা সেই সময় কলেজ থেকে স্নাতক হয়েছেন। ইন্ডাস্ট্রিতে নবাগতা। কেকে-র গাওয়া ‘পাল’ শুনেই বড় হয়ে উঠেছেন কণীনিকা। তিনি মনে করেন, নব্বইয়ের দশকের টিনএজাররা প্রায় প্রত্যেকেই পরিচিত ছিলেন ‘কেকে’ নামটির সাথে। কণীনিকার মতে, শিল্পীর জাত, ধর্ম, বর্ণ, জন্মভূমি ম্যাটার করে না। লড়াই নিজের মতো করে প্রত্যেকের জীবনে রয়েছে।

এছাড়াও তিনি বলেন সকলের জীবনে লড়াই রয়েছে। তবে প্রত্যেকের লড়াই আলাদা, তাদের নিজস্ব। অভিনেত্রী কণীনিকার মতে, ‘সমাজ তথা দর্শকদের প্রতি শিল্পীদের একটি দায়িত্ব থাকে। কারণ তাঁরা মানুষের কাছে স্বপ্নের জগতের মানুষ।’ ফলে একজন শিল্পীর উচিত একটু ভেবে-চিন্তে কথা বলা। কিন্তু একজন শিল্পীর শোভা পায় না অপর শিল্পীকে অপমান করা। কণীনিকা জানালেন, তাঁর সমসাময়িক বহু অভিনেতা-অভিনেত্রী রয়েছেন, যাঁরা তার তুলনায় কেরিয়ারে অনেকটাই এগিয়ে গেছেন। কিন্তু কণীনিকার কখনও মনে হয়নি “এরা কারা?” তিনি নিজের কেরিয়ার নিয়ে যথেষ্ট ভালো আছেন।

Related Articles