×
বিনোদন

অরিজিৎ সিং-এর কাছ থেকে ৫ কোটি টাকা চেয়েছিলেন গ্যাংস্টার! জীবন বাঁচাতে শেষমেশ চুক্তিতে রাজি হয়েছিলেন গায়ক

বিজ্ঞাপন

রবিবার সন্ধ্যায় দুষ্কৃতীদের হামলায় নিহত হয়েছেন জনপ্রিয় পাঞ্জাবি গায়ক সিধু মুসওয়ালা (Sidhu Moose Wala)। তাঁর মৃত্যুতে এক্কেবারে নাজেহাল অবস্থা পাঞ্জাব রাজ্যের। এদিকে গায়কের মৃত্যুতে শোকাহত বলিউড ইন্ডাস্ট্রিও।প্রায় ৩০ রাউন্ড গুলি চলেছে গায়কের গাড়িকে লক্ষ্য করে। হামলায় আহত সিধুকে হাসপাতালে নিয়ে যেতে যেতেই মৃত্যু হয় তাঁর। শোনা গিয়েছে, তাঁর উপর থেকে পুলিশী সিকিউরিটি ব্যবস্থা তুলে নেওয়ার এক দিন পরেই গায়কের মৃত্যু হয়। তিনি রাজনীতি করতেন। কিন্তু জানেন কি, একবার গ্যাংস্টারদের নজরে ছিলেন, অরিজিৎ সিং। সম্প্রতি, পঞ্জাবি শিল্পী সিধু মুসেওয়ালা খুনের পরেই প্রকাশ্যে এসেছে যে, প্রায় ৫ কোটি টাকা তোলা চেয়ে একবার অরিজিতের (Arijit Singh) ম্যানেজারের কাছেও ফোন এসেছিল গ্যাংস্টারদের থেকে।

বিজ্ঞাপন

গোটা বিশ্বের দরবারে এই মুহূর্তে অরিজিৎ সিং বলিউডের অন্যতম নামী গায়ক। তাই অনুরাগীদের মধ্যেও তাঁকে নিয়ে জনপ্রিয়তা তুঙ্গে। চারিদিকে তাঁর এই নাম-ডাকই কি, তাঁর প্রাণনাশের অন্যতম কারণ? আর সেই কারণেই গ্যাংস্টাররা গায়ককে ফোনে হুমকি দিয়েছিলেন? ২০১৫ সালে এক কুখ্যাত গ্যাংস্টার রবি পূজারীর থেকে ফোন এসেছিল অরিজিৎ সিংয়ের কাছে। তাঁর ম্যানেজার ফোন ধরলে, তাঁকে বলা হয়েছিল, নির্দিষ্ট সময়সীমার মধ্যে অরিজিৎকে ৫ কোটি টাকা দিতে হবে।

কিন্তু সেই মুহূর্তে অতগুলো টাকা দিতে অস্বীকার করেন অরিজিৎ। টাকা না দিলে তাঁর কাছে কয়েকটি শর্ত রাখা হয়েছিল, ফলে প্রাণ বাঁচাতে বিনামূল্যে কয়েকটি অনুষ্ঠান করতে বাধ্য হন গায়ক। সম্প্রতি পঞ্জাবের তরুণ সঙ্গীতশিল্পী সিধু মুসেওয়ালার মৃত্যুর পর অরিজিতের এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই তোলপাড় শুরু হয়ে যায় নেট দুনিয়ায়। আসলে সাধারণ মানুষ হোক কিংবা সেলিব্রিটি কেউ যে অপরাধচক্রের হাত থেকে সুরক্ষিত নন, এই ঘটনা ফের মনে করিয়ে দিল সবাইকে।

সূত্রের খবর, গ্যাংস্টারদের থেকে ৪ বছর ধরে ফোন হুমকি পেয়েছিলেন ২৮ বছরের সিধু। তাই সিধুর হত্যার পিছনেও গ্যাংস্টারদেরই হাত রয়েছে বলেই মনে করছেন সবাই। ইতিমধ্যেই কানাডার এক গ্যাংস্টার নিজেই নেটমাধ্যমে সিধু খুনের দায় স্বীকার করেন।

Related Articles